প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বরগুনার আমতলীতে কৃষককে পিটিয়ে দুই হাত ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

জয়নুল আবেদীন: [২] বরগুনার আমতলী উপজেলার টেপুরা গ্রামের শহীদুল ইসলাম মাতুব্বর (৪৫) নামের এক কৃষককে পিটিয়ে দুই হাত ভেঙে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে বুধবার রাতে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

[৩] বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ৪ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

[৪] জানাগেছে, উপজেলার টেপুরা গ্রামের নজরুল গাজীর সাথে শহীদুল ইসলাম মাতুব্বরের পারিবারিক বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। বুধবার বিকেলে নজরুল ইসলাম গাজী ও তার ভাই জহিরুল ইসলাম গাজী ও ছেলে রাফি গাজী শহীদুল ইসলামকে পিটিয়ে গুরুতর করে। এসময় তার চিৎকারে লোকজন ছুটে এলেও, তাদের ভয়ে কেউ শহীদুলকে রক্ষায় এগিয়ে আসেনি। শহীদুল জ্ঞান হারিয়ে ফেললে। খবর পেয়ে স্বজনরা এসে ওই রাতে শহীদুলকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রের করেন। ওই রাতেই তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

[৫] এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার মাহবুব আলম মাতুব্বর বাদী হয়ে নজরুল ইসলাম গাজীকে প্রধান অভিযুক্ত করে চার জনের নামে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

[৬] প্রত্যক্ষদর্শী ইসহাক সিকদার ও তাসলিমা বলেন, নজরুল গাজী ও তার লোকজন শহীদুল ইসলাম মাতুব্বরকে পিটিয়েছে।

[৭] আহত শহীদুল ইসলাম বলেন, আমার খেসারী ক্ষেতে নজরুল গাজী জোর করে ছাগল বেঁধে ডাল খাওয়াচ্ছিলো। আমি ওই ছাগল বাড়ী নিয়ে আসার সময় সন্ত্রাসী নজরুল গাজী, তার ভাই জহিরুল ইসলাম গাজী ও ছেলে রাফি গাজী আমাকে পিটিয়ে দুই হাত ভেঙে দিয়েছে। তিনি আরো বলেন, নজরুল গাজী ও তার পরিবারের লোকজন এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে বেড়ায়। তাদের অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ। তাদের মতের বিরুদ্ধে গেলেই তাকে মারধর করে এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

[৮] নজরুল ইসলাম গাজী স্ত্রী রেখা বেগম বলেন, শহীদুল অশিক্ষিত লোক, কাউকে ইজ্জত দেয় না। ছাগল নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় আমার স্বামী মারধর করেছে।

[৯] আমতলী থানায় এসআই আলাউদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় ৪জনকে অভিযুক্ত করে থানায় অভিযোগ দিয়েছে।

[১০] আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, শহীদুলের দুই হাত ভেঙে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল পাঠিয়েছে।

[১১] আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সম্পাদনা: হ্যাপি

সর্বাধিক পঠিত