প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নাসিরনগরে মেয়েকে উত্যক্ত করায় আপন ভাতিজাকে হত্যা করলো চাচা

এএইচ রাফি: [২] ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ায় শান্ত (২০) নামের আপন ভাতিজাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে চাচা। শুক্রবার (৩০ অষ্টোবর) রাত ১০টার দিকে উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের শঙ্করদাহ গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত শান্ত ওই এলাকার মাহফুজ মিয়ার ছেলে। এই ঘটনায় চাচা আক্কাস মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

[৩] পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানা যায়, আক্কাস মিয়া দীর্ঘ ২৬ বছর সৌদি আরবে প্রবাসী ছিলেন। সৌদি আরবে অবস্থা খারাপ থাকায় আড়াই বছর আগে দেশে ফিরেছেন। গত এক বছর যাবত আক্কাস মিয়ার স্কুল পড়ুয়া মেয়ে ফাহিমাকে প্রেমের প্রস্তাব সহ নানান ভাবে উত্যক্ত করতো তারই আপন বড় ভাইয়ের ছেলে শান্ত।

[৪] তারা একই বাড়িতে বসবাস করেন ও আক্কাসের মেয়ে ফাহিমা ৯ম শ্রেণীতে স্থানীয় একটি স্কুলে পড়াশোনা করেন। ফাহিমাকে শান্ত উত্যক্ত করার বিষয়ে পরিবার ছাড়াও এলাকার শালিসকারকদের জানিয়েছিলেন আক্কাস। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি।

[৫] এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ফাহিমা প্রাইভেট থেকে ফেরার পথে শান্ত তাকে জোরপূর্বক নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। সেখান থেকে ফাহিমা ধস্তাধস্তি করে বাড়িতে ফিরে আসে। বাড়িতে এসে ফাহিমা তার মাকে বিস্তারিত জানায়। ফাহিমার মা ঘটনাটি আক্কাস মিয়াকে জানালে, শুক্রবার রাতে আক্কাস ছুরি নিয়ে পাশের বড় ভাইয়ের ঘরের দরজা খুলতে বলে।

[৬] এসময় আক্কাসের বড় ভাইয়ের স্ত্রী দরজা খুলে দিলে ঘরের মেঝেতে শুয়ে থাকা ভাতিজা শান্তকে ছুরিকাঘাত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় শান্তকে হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

[৭] নাসিরনগর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইব্রাহীম আকন্দ জানান, এই ঘটনায় ঘাতক চাচা আক্কাস মিয়াকে তার নিজ ঘর থেকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হবে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত