প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাত্রী দেখে হাদিয়া বা টাকা দেওয়া যাবে কি ?

ডেস্ক রিপোর্ট : পাত্রী দেখার উদ্দেশ্য মূলত যাতে দুজন দুজনের প্রতি মুহাব্বাত পয়দা হয়
.
عن المغيرة بن شعبة، قال: خطبت امرأة على عهد رسول الله صلى الله عليه وسلم، فقال النبي صلى الله عليه وسلم: «أنظرت إليها؟» قلت: لا، قال: «فانظر إليها، فإنه أجدر أن يؤدم بينكما»
.
মুগীরা ইবনু শু’বা (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ:
.
তিনি বলেনঃ রাসূলুলাহ্‌ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর সময় আমি এক নারীকে বিবাহ করার পয়গাম দিলাম। রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেনঃ তুমি তাকে দেখে নাও। কেননা, এতে তোমাদের মধ্যে ভালবাসা পয়দা হবে।
.
সুনানে আন-নাসায়ী, হাদিস নং ৩২৩৫
.
⬆আর হাদিয়া মুহাব্বাত বৃদ্ধির নিয়ামক, তাই নিঃসন্দেহে কনেকে হাদিয়া দেওয়া
.
👉কনে দেখার পরে কনেকে হাদিয়া হিসেবে টাকা বা অন্যান্য উপহার দিতেই পারেন সমস্যা নেই। কনেও এটি সাদরে গ্রহণ করতে পারে।
.
عن أبي هريرة، عن النبي صلى الله عليه وسلم يقول: «تهادوا تحابوا»
.
আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ:
.
নবী (সাঃ) বলেনঃ তোমরা পরস্পর উপহারাদি বিনিময় করো, তোমাদের পারস্পরিক মহব্বত সৃষ্টি হবে
আদাবুল মুফরাদ, হাদিস নং ৫৯৭
.
عن عائشة ـ رضى الله عنها ـ أن الناس، كانوا يتحرون بهداياهم يوم عائشة، يبتغون بها ـ أو يبتغون بذلك ـ مرضاة رسول الله صلى الله عليه وسلم‏.‏
.
‘আয়িশা (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ:
লোকেরা তাদের হাদিয়া পাঠাবার ব্যাপারে ‘আয়িশা (রাঃ)-এর জন্য নির্ধারিত দিনের অপেক্ষা করত। এতে তারা রসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর সন্তুষ্টি অর্জনের চেষ্টা করত।
.
সহিহ বুখারী, হাদিস নং ২৫৭৪
.
💔👉তবে দুঃখজনক ব্যপার হচ্ছে হাদিয়া কম হলে কনে পক্ষর লোকজন বর পক্ষকে হেয়, তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে যা একেবারেই অনুচিত তথা নাজায়েজ!
.
عن أبي هريرة ـ رضى الله عنه ـ عن النبي صلى الله عليه وسلم قال ‏ “‏ يا نساء المسلمات لا تحقرن جارة لجارتها، ولو فرسن شاة ‏”‏‏.‏
.
আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ:
নবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেন, হে মুসলিম নারীগণ! কোন মহিলা প্রতিবেশিনী যেন অপর মহিলা প্রতিবেশিনীর হাদিয়া তুচ্ছ মনে না করে, এমনকি তা ছাগলের সামান্য গোশতযুক্ত হাড় হলেও।
.
সহিহ বুখারী, হাদিস নং ২৫৬৬
.
✍👉তবে কারও আর্থিক অবস্থা খারাপ থাকলে লোকিয়েও দেখতে পারে, এতে হাদিয়ার প্রয়োজনও নেই।
.
عَنْ أَبِـيْ حُمَيْدٍ أَوْ حُمَيْدَةَ قَالَ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ ﷺ إِذَا خَطَبَ أَحَدُكُمْ امْرَأَةً فَلَا جُنَاحَ عَلَيْهِ أَنْ يَنْظُرَ إِلَيْهَا إِذَا كَانَ إِنَّمَا يَنْظُرُ إِلَيْهَا لِخِطْبَتِهِ وَإِنْ كَانَتْ لَا تَعْلَمُ
.
আবূ হুমাইদ অথবা হুমাইদাহ কর্তৃক বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যখন তোমাদের কেউ কোন রমণীকে বিবাহ-প্রস্তাব দেয়, তখন যদি প্রস্তাবের জন্যই তাকে দেখে, তবে তা দূষণীয় নয়; যদিও ঐ রমণী তা জানতে না পারে।
.
(মুসনাদে আহমাদ ২৩৬০২-২৩৬০৩)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত