প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আইপিএলে সন্দেহজনক প্রস্তাব: দুর্নীতি দমন ইউনিটকে জানালেন এক ক্রিকেটার

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলা এক ক্রিকেটারকে সন্দেহজনক প্রস্তাব করেছেন এক ব্যক্তি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন অ্যাপ্রোচ পেয়ে দুর্নীতি-দমন ইউনিটকে অবহিত করেছেন সেই ক্রিকেটার। সঙ্গত কারণেই এই ক্রিকেটারের নাম জানানো হয়নি।

[৩] বিসিসিআই’র দুর্নীতি দমন বিভাগের প্রধান অজিত সিং গণমাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আইপিএলে নিয়মিত খেলছেন এক ক্রিকেটারের পরিচিত ব্যক্তি তাকে আপত্তিকর প্রস্তাবের ইঙ্গিত করেছেন, ওই খেলোয়াড় ব্যক্তিটিকে চিনতেন। ভালো ব্যাপার হচ্ছে পরিচিত কেউও সন্দেহজনক অ্যাপ্রোচ করলে খেলোয়াড়রা এসে জানাচ্ছেন। সম্ভবত ব্যক্তিটি কারো সঙ্গে বাজি ধরতে চাইছিলেন।

[৪] করোনাভাইরাসের কারণে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এবারের আইপিএল হচ্ছে সম্পূর্ণ জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে। খেলোয়াড়দের সঙ্গে বাইরের কারোরই দেখা করার সুযোগ নেই। তবে আপত্তিকর প্রস্তাবটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে করা হয়েছে বলে জানান অজিত। এটা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে হয়েছে। খেলোয়াড়ের পরিচিত ব্যক্তি কিছু তথ্য জানতে চান, ওই খেলোয়াড় সরাসরি না করে দেন। এটা তার (খেলোয়াড়ের) কাছে সন্দেহজনক মনে হওয়ায় দ্রুতই তিনি টিম ম্যানেজমেন্টকে অবহিত করেন। এভাবেই আমাদের কাছে এসেছে। অভিযোগটি নিয়ে আমরা তদন্ত করছি।

[৫] ম্যাচ পাতানো ও স্পট ফিক্সিং ঠেকাতে কঠোর আইন করে দিয়েছে আইসিসি। কোন খেলোয়াড় সন্দেহজনক প্রস্তাব পেলেই দুর্নীতি দমন বিভাগকে জানানোর নির্দেশনা আছে। সন্দেহজনক প্রস্তাব গোপন করলে খেলোয়াড়দের শাস্তির মুখে পড়তে হয়। তিন বার জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করে এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মধ্যে আছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। – ক্রিকইনফো/ ডেইলি স্টার

সর্বাধিক পঠিত