প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইন্স্যুরেন্স না থাকলেও চালানো যাবে গাড়ি

ডেস্ক রিপোর্ট: গাড়ির লাইসেন্স, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ট্যাক্স টোকেন, হালনাগাদ ফিটনেস সনদের পাশাপাশি ইন্স্যুরেন্স সঙ্গে না রাখলে কিংবা না করে থাকলে এতদিন চালক বা গাড়ির মালিককে মামলা দিয়ে আসছিল পুলিশ। ১৯৮৩ সালের মোটরযান অধ্যাদেশে এটি অন্তর্ভুক্ত ছিল। তবে নতুন সড়ক আইনে ইন্স্যুরেন্সের বাধ্যকতা রাখা হয়নি। ফলে ইন্স্যুরেন্স না থাকলেও মোটরযান চালানো যাবে এবং এই অপরাধে পুলিশ কিংবা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ভ্রাম্যমাণ আদালত কোনো মামলা দেবে না। বণিকবার্তা

আজ বৃহস্পতিবার এক স্মারকলিপিতে বাংলাদেশ পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেছে বিআরটিএ। সংস্থাটির পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) লোকমান হোসেন মোল্লা বণিক বার্তাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩-এর ধারা ১০৯ অনুযায়ী তৃতীয় পক্ষের ঝুঁকি বীমা বাধ্যতামূলক ছিল এবং এর অধীনে ১৫৫ ধারায় দণ্ডের বিধান ছিল। তবে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮-এর ধারা ৬০-এর উপ-ধারায় (১), (২) ও (৩) অনুযায়ী এটি বাধ্যতামূলক নয়।

তৃতীয় পক্ষের ঝুঁকি বীমা না থাকলে সংশ্লিষ্ট মোটরযান বা মোটরযানের মালিকের বিরুদ্ধে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ অনুযায়ী কোনো মামলা দেয়ার সুযোগ নেই। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সকলকে অবগত করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্মারকে অনুরোধ করে বিআরটিএ।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত