প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বশেমুরবিপ্রবিতে আবারও কম্পিউটার চুরি

আসাদুজ্জামান বাবুল: [২] দীঘ ১১ মাস পর নতুন ভিসি যোগদানের ৮ দিনের মাথায় গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আবারো কম্পিউটার চুরির ঘটনা ঘটেছে।

[৩] এবার চুরি হয়েছে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের দুটি কম্পিউটার। এর আগে গত ঈদুল আযহার ছুটি চলাকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ২১ শে ফেব্রয়ারী লাইব্রেরী খেকে ৪৯টি কম্পিউটার চুরির ঘটনা ঘটে। এরপর নতুন করে আবারো কম্পিউটার চুরির ঘটনা সকলকে অবাক করে দিয়েছে। তবে চুরির ঘটনাটি কবে এবং কিভাবে হয়েছে তা বলতে পারছেনা কেউই। ওই সংশ্লিষ্ট এলাকায় আদৌ সিসি ক্যামেরা ছিলো কিনা আর সিসি ক্যামেরা যদি থেকেও থাকে তাহলে সেটি কোন অবস্থায় ছিলো তাও খতিয়ে দেখছেন বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ।

[৪] চুরির ঘটনাটি ঠিক কবে বা কীভাবে ঘটেছে তা এখনো আমরা নিশ্চিত নই এমন কথা উল্লেখ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও বিভাগ প্রধান মো, তসলিম আহম্মদ সাংবাদিকদের বলেছেন, গত ১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রেজাল্ট সংক্রান্ত কাজে বিভাগ খুললে দেখা যায় ছাউনি ভাঙাসহ দুটি কম্পিউটার নাই। বিষয়টি আমি তাৎক্ষণিক ভাবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অবহিত করেছি।

[৫] ঝোপঝাড়ে পরিপূর্ণ এবং নিরাপক্তাহীন একটি টিনশেডে বিভাগ কার্যক্রম চলছে এমন কথা উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, আমাদের বিভাগটি মূলত বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছনের দিকে অবস্থিত। তাছাড়া বেশ কিছুদিন বন্ধ থাকায় ঘরটির চারিপাশে ঝোপঝাড়ে পরিণত হয়েছে। কোন মানুষ লুকিয়ে থাকলেও তাকে খুজে পাওয়া কঠিন হবে। পূর্বে নিরাপত্তা

[৬] সমস্যাজনিত বিষয় নিয়ে ৩ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিকট আবেদনপত্র প্রদান করি। তবে বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম , কম্পিউটার চুরির এই বিষয়ে তারা এখনো অবগত নয়। তাছাড়া সকল বিভাগ তালাবন্ধই লক্ষ করেছেন।

[৭] প্রসঙ্গত , ঈদুল আযহার ছুটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরি হয়। পরবর্তীতে ১৩ আগস্ট রাতে রাজধানীর মহাখালী এলাকার ক্রিস্টাল ইন রেস্তোরায় গোপালগঞ্জ ও ঢাকার বানানী থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে চোরাইকৃত ৪৯টি কম্পিউটারের মধ্যে ৩৪ টি কম্পিউটার উদ্ধার করে।

[৮] এ সময় পুলিশ গ্রেফতার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিন নামে একজন শিক্ষার্থীসহ ২ জনকে। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ গ্রেফতার করে আরো ৫ জন চোরকে। পুলিশের কাছে আটক চোরেরা চুরির কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

সর্বাধিক পঠিত