প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সর্বোচ্চে আমার দ্বারা প্রেমই সম্ভব আর সর্বোনিন্মেও প্রেম!

শায়লা সিমি নূর : মহান আল্লাহ্সুবহানাতালা সকল ক্ষমতা ও গুণের আধার , আমার চর্চা আর শিল্প সে মহান আল্লার ভালোবাসা পাওয়ার তাগিদ… আর এ’গোপন সম্পর্ক প্রকাশের বিষয়টা ভিন্ন। প্রকাশের ক্ষেত্রে ভাষাগত সীমাবদ্ধতা আছে…বরং শিল্পের মাধ্যমে তা’ অনেকাংশে প্রকাশ সম্ভব হয়েছে…কবিতায়ও! আমি যে ধারায় আঁকি তার মৌলিক শিল্পী সুফী আর্টের প্রবর্তক শিল্পী /সাধক রনি আহম্মেদ। তার প্রথম সুফীশিল্প প্রদর্শনীর ঠিক পর’ই এ’ধারার কাজ আমি শুরু করেছি, তার’ই পরমসঙ্গ লাভের প্রেক্ষিতে।তবে আল্লাহ্পাক সকল সৃষ্টির মধ্যেদিয়ে ভিন্নতার অভিজ্ঞতা প্রদানে সদা তৎপর , তাই একই মূলাধার ভিত্তি করে গড়ে উঠা গাছের সকল ফলের স্বাদ  ও আকার রক নয়।

সৃষ্টি তার নিজ্বস্ব ধারায় আল্লার ইশারায় মুহূর্তে প্রতীয়মান, সে জ্ঞান ভান্ডারের কিছু ছিটে-ফোটা’ই আমার শিল্পকর্ম। তবে কর্মগুলো প্রত্যেকটি একটি সত্য চিত্র যা সুফীজ্ঞান দ্বারা আলোকিত। যদি’তা হয় আকাশের তারা বা কোনো জীব সংক্রান্ত, বুঝতে হবে কোনো এক মাত্রায় এর সত্য অবস্থানের প্রতিফলন বিদ্যমান……ঠিক যেমন সত্য জন্ম ও মৃত্যু এবং উত্থান শেষ দিবসে ! আমার পেইন্টিংগুলো আলোকিত জগতের আয়না।

সকল শিল্প’ই আল্লার পক্ষ থেকে একটি জ্ঞান। তবে মাধ্যম আছে যা প্রভাবিত বিয়োগাত্মক বিষয়াদি দ্বারা। এখানে’ই অন্য শিল্পকর্ম ও সুফিশিল্পকর্মের মৌলিক অমিল। আমার কাজ শুধুমাত্র সত্য জ্ঞান দ্বারা আলোকিত এবং মাধ্যম হলো আল্লাহর আলোর সঙ্গে গুরু কৃপায় যোগাযোগ। যে ধারার সুফী আর্ট আমি করি এখানে বিমূর্ততা বলে কিছু আমি বিশ্বাস করিনা। এখানে কান্না কখনই দুঃখের নয়। এখানে কান্না নিজ্বস্ব সত্তার অংশ নয়, তা সার্বিক ও সার্বজনীন। “সুখে ও কান্না তাই দুচোখ ভোরে !”

এবং সময় আমার শিল্পে তেমন কোনো ভূমিকা রাখে না। আমার কর্মের কোনো সময় নেই।ইহা সকল সময়ে বর্তমান। আমার আগ্রহ সময় নয় আবার অন্য এক সময়!

আমার চিত্রে সনাক্ত করণের কোনো বিষয় নাই , অবয়ব আছে তবে আসলে তা’আলো, দেখা ও গ্রহণ করার বিষয়ে থাকে এক অনবদ্য প্রেম , আল্লাহর প্রেমিক তা জানে , আর এ’ শিল্পকে বিচারের অবকাশ নাই।

পৃথিবী আমলের স্থান এবং আমার শিল্পকর্মের অংশ তবে যেহেতু পৃথিবী ক্ষণস্থায়ী , তাই স্থায়ী জগতের ভাবনাই বেশি করে প্রভাবিত করে চিত্রগুলোকে। পৃথিবী বিচ্ছিন্নবাদের উপর প্রতিষ্ঠিত। এই বিচ্ছেদের কাল থেকে মিলনে উত্তোলনের যে পথ নবী করিম ( সাঃ ) জানিয়ে গেছেন….বা তার পূর্বপুরুষ ও পিতামহ নবী ও রাসূলগণ বর্ণনা করে গেছেন, মাশাল্লাহ….আমার আগ্রহের বিষয় তাই।

সুফী আর্ট ছাড়া কয়েকটি মডার্ন আর্ট করেছি তার মধ্যে একটির কথা বলি “পেরোটিক লাভ ” এখানে আমি প্রেম বুঝিয়েছি।

সর্বোচ্চে আমার দ্বারা প্রেমই সম্ভব আর সর্বোনিন্মেও প্রেম! জীবন থেকে কিছু যদি সরে যায় তা প্রেমের কারণে। আর কিছু যদি যোগ হয় তাও প্রেমের কারণে….আল্লাহর হুকুমে।

কাঠের উপর করা একটি পেন্টিংয়ের কথা উল্ল্যেখ করা যায় , “হযরত ঈসার শেষ সমাবেশ” এখানে দুটি জগৎ মিশে আছে এক দৃশ্যে।

রঙের ব্যবহারে সাদা সদাই প্রাধান্য পায়। কারণ সকল রঙের ধারক সাদা। তবে বেগুনিকে আমি সর্বোচ্চ রং বলে জানি। আসমানের শেষ প্রান্তে যে বেগুনি আছে আমি তার মিলন আকাঙ্খা করি।

জীবন বা শিল্প নিয়ে আমার কোনো পরিকল্পনা নাই। আল্লাহ যা চান তাই আমি চাই। তবে বেগম গ্যালারি আরও কর্মের সঙ্গে সংপৃক্ত হোক এটা কামনা করি, তারপরও আবার বলবো আল্লাহ যা চান তাই হোক। তিনি সর্বশ্রেষ্ঠ আমি শুধু চেষ্টা করি তবে পাওয়া না পাওয়া এ সবের কোনো অঙ্ক করিনা।

লেখক : সুফী চিত্র শিল্পী ও কবি  ওনার বেগম গ্যালারি এন্ড রেস্টুরেন্ট

 

সর্বাধিক পঠিত