প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]কোভিড-১৯ মোকাবেলা ও মানুষের কল্যাণে সামনে থাকাদের পাশে ত্রিমাত্রিক-৩০ বিসিএস

সুজন কৈরী : [২] মহামারি কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সম্মুখযোদ্ধাদের পাশে থেকে নিরাপত্তা সামগ্রী দেয়া এবং সাধারণ মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে ত্রিমাত্রিক-৩০ বিসিএস অফিসার্স কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড। দেশে মরণঘাতি এ ভাইরাসের সংক্রমণের শুরু হওয়ার পর থেকেই নিয়মিতভাবে সংগঠনটির কর্মীরা নিজ উদ্যোগে এমন সহযোগিতা করছেন।

[৩] তিন বছর আগে ৩০ বিসিএস ক্যাডারের কয়েকজন সদস্য মিলে ‘অংশীদারিত্ব-পেশাদারিত্ব-সমৃদ্ধি’ ভাবনা ও স্বপ্ন নিয়ে গঠন করেন ত্রিমাত্রিক-৩০ বিসিএস অফিসার্স কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড। ২০১৭ সালে সমবায় অধিদফতর থেকে রেজিস্ট্রেশন লাভের পর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে শুভ উদ্বোধন ও ‘ত্রিমাত্রিক প্রারম্ভিকা’ স্মরণিকা উন্মোচনের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে সংগঠনটি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে মানবিক ও সামাজিক সকল ক্ষেত্রে অনন্য ভ‚মিকা রাখার পাশাপাশি সেবাধর্মী সংগঠন হিসেবে জনসমাজে প্রশংসিতও হচ্ছে প্রতিনিয়ত। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে পেশাদারিত্বের পাশাপাশি করোনা মহামারী মোকাবেলায় শুরু থেকেই সংগঠনটি সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কাজ করা ডাক্তার, পুলিশ সদস্য, স্বাস্থ্যকর্মী ও সাংবাদিকসহ যারা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন, তাদের মনোবল বৃদ্ধি ও উৎসাহ সৃষ্টিতে ‘সুরক্ষা সামগ্রী’ দিচ্ছে। সুরক্ষা সামগ্রীর মধ্যে কেএন ৯৫ মাস্ক, ফেস শিল্ড, সার্জিক্যাল গ্লাভস, হ্যান্ড রাব, সার্জিক্যাল ক্যাপ, সার্জিক্যাল মাস্কসহ প্রয়োজনীয় বিভিন্ন উপকরণ উপহার হিসেবে প্রদান করছে।

[৪] রোববার সংগঠনের উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠাতা ও বর্তমান সভাপতি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) এডিসি মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাংগঠনিক ও ব্যক্তিগতভাবে এই সংগঠনের সদস্যরা কল্যাণমুখী বিভিন্ন কার্যক্রম চালাচ্ছেন।

[৫] তিনি বলেন, মহামারির শুরুর দিকে মানুষ যখন ভীত ও উদ্বিগ্ন, ঠিক সেই মুহূর্তে সংগঠনের সভাপতি ব্যক্তি উদ্যোগে কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের মনোবল ও উৎসাহ বৃদ্ধির জন্য উপহার হিসেবে সুরক্ষা সামগ্রী পাঠান। ত্রিমাত্রিক-৩০ বিসিএসের সদস্য চিকিৎসক মো. মোস্তাফিজুর রহমান সেই সুরক্ষা সামগ্রী হাসপাতালের পরিচালকের কাছে হস্তান্তর করেন। এছাড়া সংগঠনের পক্ষ থেকে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে সুরক্ষা সামগ্রী দিয়েছে।

[৬] গত ১৯ মে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে এবং ৩০ মে ঢামেক হাসপাতালের ভাইরোলজি বিভাগে উপহার হিসেবে সুরক্ষা সামগ্রী দেয়া হয়। ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘ত্রিমাত্রিক-৩০ বিসিএসের বিভিন্ন হাসপাতালে সুরক্ষা সামগ্রী উপহার কার্যক্রম সময়োপযোগী প্রশংসনীয় উদ্যোগ।’ রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের পক্ষে শুভেচ্ছা উপহার গ্রহণ করেন পুলিশ সুপার ডা. এমদাদুল হক ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) সাইফুল ইসলাম সানতু। তারা সংগঠনের মহতি উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। সংগঠনটি কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশকে উপহার হিসেবে সুরক্ষা সামগ্রী দিয়েছে। এখন পর্যন্ত সংগঠনটি করোনা মোকাবিলায় সম্মুখযোদ্ধাদের ৫০০ কেএন ৯৫ মাস্ক, দুই হাজার ফেস শিল্ড, এক হাজার জোড়া সার্জিক্যাল গ্লাভস, এক হাজার হ্যান্ডবার, এক হাজার সার্জিক্যাল ক্যাপ, পাঁচ হাজার সার্জিক্যাল মাস্কসহ শতাধিক দুস্থ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে।

[৭] সংগঠনের সভাপতি ডিএমপির এডিসি জাহাঙ্গীর আলম স্বপ্ন বাস্তবায়নে সবার উৎসাহ ও সহযোগিতা করে বলেন, ‘দেশের এই প্রেক্ষাপটে মানবিক সব কার্যক্রমে সংগঠনের অংশগ্রহণ দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে শক্তিশালী ভুমিকা রাখবে। আসুন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি, নিজে নিরাপদ থাকি, দেশকে নিরাপদ রাখি।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত