প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনা উপসর্গে ওসমানী মেডিকেলের অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকরের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট : [২] সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকর দে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

শনিবার (২৭ জুন) রাত ৮ টা ৩৭ মিনিটে সিলেটের মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। হাসপাতালটির সহকারী মহাব্যবস্থাপক রাশেদুল ইসলাম তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

[৩] তিনি বলেন, করোনার উপসর্গ নিয়ে ডা. গোপাল শংকর দে গত ২১ জুন নগরের আখালিয়ার মাউন্ড এডোরা হাসপাতালে ভর্তি হন। বাড়িতে অসুস্থ থাকা অবস্থাতেই তিনি করোনার নমুনা পরীক্ষা করিয়েছিলেন। তবে পরীক্ষার রিপোর্ট করোনা নেগেটিভ এসেছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের সব উপসর্গ তার শরীরে থাকায় চিকিৎসকরা গত ২২ জুন আবার তার নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেন। সেই রিপোর্ট এখনও পাওয়া যায়নি। তবে তাকে করোনা রোগী হিসেবে ধরে নিয়েই আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।

হাসপাতালে ডা. গোপাল শংকরের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত মোতাবেক দুই দিন আগে তাকে প্লাজমা থেরাপি দেয়া হয়েছিল বলেও জানান রাশেদুল ইসলাম।

[৪] করোনা প্রতিরোধ কমিটি সিলেটের সদস্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক হিমাংশু লাল রায় বলেন, অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকরের করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় তাকে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সৎকার করা হবে।

[৫] ফাউন্ডেশন ফর ডক্টর সেফটি, রাইটস অ্যান্ড রেসপনসিবিলিটিজের (এফডিএসআর) যুগ্ম সম্পাদক ডা. রাহাত আনোয়ার চৌধুরী জানান, ডা. গোপাল শংকর দে ওসমানী মেডিকেল কলেজের ১২তম ব্যাচের ছাত্র ছিলেন। এরপর তিনি সরকারি চিকিৎসক হিসেবে যোগ দেন। ওসমানী মেডিকেল কলেজের অধ্যাপকও ছিলেন তিনি।

জানা গেছে, অধ্যাপক গোপাল শংকর দে সিলেট নগরের চৌহাট্টা এলাকায় টুনি ফার্মেসিতে ও জিন্দাবাজারের কাজী ইলিয়াস এলাকায় জেআরআর হাসপাতালে প্রাইভেট রোগী দেখতেন। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত তিনি দেখেন। তবে সিলেটে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হলে চেম্বার বন্ধ রাখেন তিনি।
জাগো নিউজ, বাংলানিউজ

সর্বাধিক পঠিত