প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কোভিড-১৯-এর প্রভাবে সীমিত পরিসরে পালিত হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের রথউৎসব

সমীরণ রায় : [২] হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের ঐতিহ্যবাহী রথযাত্রা ২৩ জুন মঙ্গলবার থেকে শুরু। প্রতিবছর চন্দ্র আষাঢ়ের শুক্লপক্ষের দ্বিতীয়া তিথিতে রথাযাত্রা শুরু হয়। এর ৯ দিনের মাথায় অনুষ্ঠিত হয় উল্টো রথযাত্রা। এবারের উল্টো রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে ১ জুলাই। তবে কোভিড-১৯-এর কারণে রথযাত্রার সব ধরণের অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছে। ফলে রাজপথে বের হচ্ছে না রথসহ শোভাযাত্রা। শুধুমাত্র স্বাস্থ্য বিধি মেনে সেবায়েতসহ ১০জন ভক্ত সীমিত পরিসরে পূজা অর্চনা করবেন।

[৩] জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) ঢাকার ৯দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা থাকলেও এবছর শুধুমাত্র পূজা অর্চনাই হবে। ইসকনের স্বামীবাগ আশ্রম বিশ্বশান্তি ও মঙ্গল কামনায় অগ্নিহোত্র যজ্ঞানুষ্ঠান হবে। প্রতি বছরের মতো জগন্নাথ দেব, শুভদ্রা ও বলরামের প্রতিকৃতি নিয়ে বিশাল রথসহ বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা হচ্ছে না। তিনটি সুবিশাল রথসহ শোভাযাত্রা নগরীর বিভিন্ন সড়ক ঘুরে ঢাকেশ^রী মন্দিরে যাবে না।

[৪] ঢাকা জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধাণ সম্পাদক বরুন ভৌমিক নয়ন বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে এবছর রথযাত্রা সীমিত পরিসরে পালন করা হবে। শুধুমাত্র ধর্মীয় অনুশাসন মেনে জগন্নাথ দেবের পূজা করা হবে। সেখানে যথাযথ সাস্থ্য বিধি মেনে সর্বোচ্চ ১০জন ভক্ত সেখানে উপস্থিত থাকবেন।

[৫] ইসকন জাতীয় কমিটির সদস্য ও চট্টগ্রামের নন্দনকানন শ্রীশ্রী রাধামাধব মন্দিরের সেবায়েত মুকুন্দ ভক্তি দাস ব্রহ্মচারী বলেন, করোনার কারণে বাইরে রথযাত্রা হচ্ছে না। তবে মন্দিরে অনুষ্ঠানাদি চলবে। এছাড়া ভার্চ্যুয়াল ধর্মসভায় মিলিত হবেন কৃষ্ণসেবকরা। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে আগামী ১ জুলাই উল্টো রথযাত্রাও অনুষ্ঠিত হবে।

[৬] রথযাত্রা একেক অঞ্চলে একেক নামে পরিচিত। শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রার প্রচলন পুরী জগন্নাথ দেবের মন্দির থেকে। বাংলাদেশেও রথযাত্রা হিন্দুদের একটি পবিত্রতম ধর্মীয় উৎসব। ঢাকার উপকণ্ঠে ধামরাইয়ে এ রথযাত্রা যশোমাধবের রথযাত্রা নামে উপমহাদেশ বিখ্যাত। গাজীপুরের জয়দেবপুরে এই রথযাত্রা মাণিক্যমাধবের রথযাত্রা নামে পরিচিত। ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের যশোমাধবের রথযাত্রা ও মহেশের জগন্নাথদেবের রথযাত্রাও উপমহাদেশ খ্যাত। ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে রথযাত্রার ব্যাপক প্রচলন রয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত