প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বরিশালে ইউএনওসহ নতুন ৩৯ জন আক্রান্ত, কোভিড-১৯ উপসর্গ নিয়ে পাঁচজনের মৃত্যু

খোকন আহমেদ, বরিশাল প্রতিনিধি: [২] করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে রোববার স্বল্প সময়ের ব্যবধানে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া এক চিকিৎসক উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেও পরবর্তীতে নমুনা পরীক্ষায় তার শরীরে করোনার অস্থিত্ব পাওয়া গেছে।

[৩] সর্বশেষ রবিবার দিবাগত রাত এগারোটার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন হাসপাতাল পরিচালক ডাঃ মোহাম্মদ বাকির হোসেন বলেন, এনিয়ে শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ৭০ জন রোগী আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

[৪] সূত্র মতে, রোববার দুপুরে করোনা ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ১৩ বছর বয়সের কিশোর আল মামুন। সে বরগুনার পাথরঘাটার বহরপুর গ্রামের আব্দুল বারেকের পুত্র। এ বিয়োগান্তের কিছুক্ষণ পর নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হওয়া জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা গ্রামের মৃত হাতেম আলীর পুত্র ৬০ বছরের বৃদ্ধ লুৎফর রহমান একই ওয়ার্ডে মারা যায়।

[৫] এর আগে সকালে করোনা ওয়ার্ডে মারা যান ৪০ বছর বয়সের গৃহবধূ শিউলী বেগম। সে ঝালকাঠির গুয়াটন এলাকার ইকবাল হোসেনের স্ত্রী। একই ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান করোনা শনাক্ত হওয়ায় ৬০ বছরের বৃদ্ধ মো.জয়নাল আবেদীন। সে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার মৃত আফসার আলীর পুত্র। একই ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ঝালকাঠির রাজাপুরের গালুয়া এলাকার মৃত আমজেদ আলীর পুত্র করোনা শনাক্ত হওয়া ৫০ বছর বয়সের আইউব আলীর মৃত্যু হয়। উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরন করাদের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে প্রেরণ করা হয়েছে।

[৬] এছাড়া জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে মারা যাওয়া বরিশাল সদর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা.এমদাদ উল্লাহ খান করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করার পর তার নমুনা পরীক্ষার প্রাপ্ত রিপোর্টে তার শরীরে করোনার অস্থিত্ব পাওয়া গেছে।

[৭] হাসপাতালের পরিচালক আরও জানান, গত ২৯ মার্চ থেকে ২১ জুন পর্যন্ত করোনা ওয়ার্ডে ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত ও অন্যান্যরা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

[৮] জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেল সূত্রে জানা গেছে, জেলার মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিজুষ চন্দ্র দে’র নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়াও রবিবার জেলায় নতুন করে ৩৯ জন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে জেলায় ১২১০ জন ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত