প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সিংগাইরের জয়মন্টপে লকডাউন অমান্য করে জমজমাট পশুর হাট

সিরাজুল ইসলাম : [২] মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার জয়মন্টপ ইউনিয়নে করোনা সংক্রমণে মুদি ব্যবসায়ী বাদল সাহার মৃত্যুতে উপজেলা প্রশাসন ওই ইউনিয়নকে গত ২৭ মে লকডাউন ঘোষণা করেন। লকডাউন অমান্য করে ইউনিয়নটিতে ক্ষমতাসীন দলের দু‘গ্রুপের রাজনৈতিক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর এবার জমজমাট পশুর হাট বসায় আলোচনার কেন্দ্র-বিন্দুতে পরিনত হয়েছে।

[৩] শুক্রবার(০৫জুন) জয়মন্টপ হাটখোলা মাঠে জমজমাট পশুর হাট বসতে দেখা গেছে। হাটে চলমান করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা তো দূরের কথা, মানা হয়নি কোনো সামাজিক দূরত্বও। অভিযোগ ওঠেছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে ব্যবসায়ী বাদল সাহার বাড়ির মাত্র ২০ গজ দূরে এ পশুর হাটটি বসে। সূত্র জানায় ,নিহত বাদল সাহা ছাড়াও ওই পরিবারে আরো কয়েকজনের দেহে করোনা ভাইরাসের নমুনা পরিক্ষা করে পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এতে উপজেলা প্রশাসন গণবিজ্ঞপ্তি দিয়ে ওই ইউনিয়নকে লকডাউন ঘোষনা করেন। সে অনুযায়ী আগামী ১১জুন পর্যন্ত লকডাউন বলবৎ থাকার কথা। এ লকডাউনকে অমান্য করে ঘটে যায় কয়েক দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ঘটনা। স্থানীয়রা লকডাউনের মধ্যে পশুর হাট বসানোর কারনে বেশী মাত্রায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশংকা করছেন। জয়মন্টপ পুরাতন বাসস্ট্যান্ড ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও পল্লী চিকিৎসক সেলিম রেজা বলেন, কোনোভাবেই লকডাউন শেষ না হতে পশুর হাট বসানো উচিত হয়নি। লকডাউন কার্যকর করতে আমি প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।

[৪] জয়মন্টপ পশুর হাটের ইজারাদার মোঃ আমজাদ হোসেন বলেন,ইউএনও মহোদয়ের অনুমতি নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে পশুর হাট বসানো হয়েছে।

[৫] জয়মন্টপ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শাহাদৎ হোসেন বলেন, ইউএনও মহোদয়ের নির্দেশে হাটখোলা থেকে কাঁচা বাজার সরিয়ে পশুর হাট বসানো হয়েছে ।

[৬] এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুনা লায়লা বলেন, ডিসি স্যারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী স্বাস্থ্য বিধি মেনে যদি পশুর হাট চালাতে পারে তাতে বাধা নেই। জয়মন্টপ ইউনিয়ন লকডাউন বলবৎ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মানুষ সচেতন না হলে কোনোভাবেই লকডাউন কার্যকর করা সম্ভব নয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত