প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সরাইলে আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগ

আরিফুল ইসলাম : [২] ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এসিল্যান্ড ও পুলিশের নাম ভাঙিয়ে এবং নিজেকে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা পরিচয় দিয়ে একের পর এক চাঁদাবাজি করাই তার পেশা। স্থানীয় বিভিন্ন দপ্তর, শিক্ষা ও পাবলিক প্রতিষ্ঠান এমনকি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কিছুই বাদ যায়নি তার থাবা থেকে। এছাড়াও সরকারি খাস জমি ও নদীর জায়গা অবৈধ দখলবাজিতেও পিছিয়ে নেই তিনি।

[৩] নাম তার আবু তালেব। সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও অরুয়াইল বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক। তিনি অরুয়াইল এলাকায় এক ভয়ঙ্কর চাঁদাবাজ। শনিবার (৩০ মে) অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন ভূইঁয়া সাংবাদিকদের কাছে আ’লীগ নেতা আবু তালেবের বিরুদ্ধে বেপরোয়া চাঁদাবাজির ফিরিস্তি তুলে ধরে এমনটিই দাবি করেছেন এই ইউপি চেয়ারম্যান।

[৪] এরআগে আওয়ামী লীগ নেতা ও অরুয়াইল বাজার কমিটির সভাপতি আবু তালেবের বিরুদ্ধে বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, আ’লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, বাজার কমিটি ও বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দসহ অরুয়াইল বাজারের দেড় শতাধিক ব্যবসায়ি একটি লিখিত অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে জমা দিয়েছেন। সেই সঙ্গে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে আবু তালেবের অপসারণ দাবি করেন তারা।

[৫] ভূক্তভোগী লোকজন জানান, আবু তালেব অরুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং বিগত সাত বছর যাবত অরুয়াইল বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আছেন। তিনি উপজেলা আইনশৃঙ্খলা সভার সদস্যও। এসব কারণে আবু তালেব এলাকায় একটি বলয় সৃষ্টি করে চাঁদাবাজি ও দখলবাজির রাম-রাজত্ব চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতিতে নানা বাহানায় অরুয়াইল বাজার ব্যবসায়িদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা চাঁদা তুলছেন। করোনায় দুস্থদের মাঝে ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে ব্যবসায়িদের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। অথচ এসব টাকায় কোনো ত্রাণ না দিয়ে নিজেই আত্মসাৎ করেছেন। অরুয়াইল পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যদের ঈদের বোনাস দেওয়ার কথা বলে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের কাছ থেক ৫০ হাজার টাকা চাঁদা তুলেছেন আ’লীগ নেতা আবু তালেব। অথচ পুলিশ ফাঁড়িতে সেই টাকা দেননি তিনি।

[৭] ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন ভূইঁয়া অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ নেতা আবু তালেবের বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে অরুয়াইল বাজারের ব্যবসায়ীরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। করোনার কারণে প্রশাসন কর্তৃক বাজারের বন্ধ দোকানগুলোর তালা খুলে দেওয়ার কথা বলে আবু তালেব মিয়া ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। এসিল্যান্ড ও ম্যাজিস্ট্রেট আসার হুমকি দিয়ে ব্যবসায়িদের কাছ থেকে কৌশলে টাকা তুলে নিজের পকেট ভারী করেছেন। আওয়ামী লীগের সভাপতি পদের প্রভাব খাটিয়ে নদীর জায়গা অবৈধভাবে দখল করে নিয়েছেন। সরাইল-অরুয়াইল সড়কে নির্মাণ কাজে ঠিকাদারকে অনিয়মে সহায়তা করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন আবু তালেব। তার এসব অপকর্মের কারণে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে।

[৮] এদিকে আওয়ামী লীগ নেতা আবু তালেবের বেপরোয়া চাঁদাবাজি ও দখলবাজির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্রে স্বাক্ষরসহ প্রকাশ্যে তার সকল অপকর্মের পর্দা ফাঁস করে বক্তব্য দেন অরুয়াইল আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. কুতুব উদ্দিন ভূঁইয়া, ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইঁয়া, আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান, অরুয়াইল বাজার কমিটির যুগ্ম সম্পাদক ও ইউপি যুবলীগের আহ্বায়ক মো. বোরহান উদ্দিন, অরুয়াইল বণিক সমিতির সভাপতি ক্ষিরোদ ঘোষ, যুবলীগের সাবেক সম্পাদক জাবেদ আল-হাসান, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক জিএম কাপ্তান, ইউনিয়ন জাতীয় যুবসংহতির সভাপতি গাজী মো. দুলাল প্রমূখ। বক্তারা তদন্ত সাপেক্ষে আবু তালেবকে আওয়ামী লীগের পদ ও বাজার কমিটির পদ থেকে অনতিবিলম্বে অপসারণের দাবি জানান।

[৯] এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতা আবু তালেব সাংবাদিকদের জানান, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা, বানোয়াট ও মনগড়া। যুবলীগ নেতা বোরহান বাজার কমিটির সভাপতি হওয়ার জন্যই এসব ষড়যন্ত্র করছে। সাত বছর যাবত সুনামের সাথে বাজার কমিটিতে আছি। নতুন কমিটি চাইলে নির্বাচন হবে।

[৯] আবু তালেব জানান, বোরহানের সঙ্গে আলোচনা করেই ফাঁড়ির পুলিশ সদস্যদের জন্য ঈদ বোনাসের টাকা উত্তোলন করেছি। করোনায় দোকানে তালা দিয়েছে সরকার। আমি খুলে দিব কিভাবে? এসব মিথ্যা। আমার দলীয় পদ থেকে অপসারণ ওরা করবেন কিভাবে ? এটা বুঝবেন আমার উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

[১০] সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এস এম মোসা জানান, আবু তালেবের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে সহকারি কমিশনার (ভূমি) কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পাবার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। আবু তালেবকে বাজার থেকে আর কোন ধরণের টাকা উত্তোলন না করতে নিষেধ করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত