প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সেকেন্ডেরও কম সময়ে ডাউনলোড হবে হাজারেরও বেশি এইচডি মুভি

দেবদুলাল মুন্না:[২]বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত গতির ইন্টারনেট পরীক্ষার দাবি করেছেন অস্ট্রেলিয়ার একদল গবেষক। অস্ট্রেলিয়ার মোনাশ, সুইনবার্ন এবং আরএমআইটি ইউনিভার্সিটির গবেষকদের দলটি সেকেন্ডে ৪৪.২ টেরাবিট ডেটা স্থানান্তর গতি পেয়েছেন জানিয়েছেন। গবেষকরা বলছেন, বর্তমান টেলিযোগাযোগ হার্ডওয়্যারে ব্যবহৃত হয় এমন ৮০টি লেজারের বদলে শুধু একটি ডিভাইসের মাধ্যমে এই গতি পাওয়া গেছে। এই যন্ত্রাংশটির নাম বলা হচ্ছে ‘মাইক্রো-কম্ব’। বিবিসি

[৩অফকমের তথ্যমতে, যুক্তরাজ্যের ব্রডব্যান্ডের গড় গতি সেকেন্ডে ৬৪ মেগাবিট, যা সাম্প্রতিক এই গবেষণায় পাওয়া ফলাফলের তুলনায় অতি নগণ্য।

[৪] এই গবেষণাকে ‘অসাধারণ সাফল্য হিসেবে’ ব্যাখ্যা করেছেন সুইনবার্ন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ডেভিড মস। ইন্টারনেটের গতির র‌্যাংকিংয়ে মাঝামাঝি অবস্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। আর দেশটির গ্রাহকদের নিয়মিত অভিযোগ ধীর গতির সংযোগ।

[৫]অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশনাল ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্কের (এনবিএন) মতোই বর্তমান কাঠামোতে ল্যাবের ভেতরে এবং বাইরে মাইক্রো-কম্ব বসিয়ে পরীক্ষা চালিয়েছে গবেষক দলটি।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত