প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাহরুখ থেকে অমিতাভ : বিলাসবহুল বাড়িতে লকডাউন যাঁদের

বিনোদন ডেস্ক : বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিপর্যস্ত বিশ্ব। এই অস্বাভাবিক অবস্থা ঠিক কতদিন চলবে, তা কেউ জানে না। অন্যান্য দেশের মতো ভারতেও বাড়ানো হয়েছে লকডাউনের মেয়াদ। ২১ দিনের লকডাউন শেষে তা বাড়িয়ে ৩ মে পর্যন্ত করা হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী বাসায় অবস্থান করছেন নাগরিকেরা। তারকারাও এর ব্যতিক্রম নন। আর টানা বাসায় থাকতে থাকতে অনেকের মধ্যে বিরক্তি আসাও স্বাভাবিক।

তবে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসের প্রতিবেদনে জানা যায়, তারকারা সাধারণত বিলাসী জীবনযাপনে অভ্যস্ত। এমনকি তাঁদের বিলাসবহুল বাড়িও অনেকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে। বিশেষ করে মুম্বাইয়ে গেলে পর্যটকদের কেউ কেউ সেসব বাড়ি দেখতে যান। তবে চলমান পরিস্থিতি সবার ভবিষ্যৎকে অনিশ্চিত করে তুলেছে।

এই ক্রান্তিকালে বলিউড তারকারাও মানুষের পাশে এগিয়ে আসছেন সাধ্যমতো। তাঁরা আর্থিক সাহায্য করছেন, অনেকের দায়িত্ব নিচ্ছেন, জনসচেতনতা বাড়াতে কাজ করছেন, ভক্ত-অনুরাগীদের সঙ্গে নিজেদের নানা অভিজ্ঞতা বিনিময় করছেন।

কিন্তু জনসাধারণের অনেকেই বিষয়টি ভিন্ন দৃষ্টিতে দেখছেন। তাঁদের মতে, তারকাদের পর্যাপ্ত অর্থ ও ভালোভাবে থাকার বন্দোবস্ত থাকায় তাঁরা কেন দুঃখিত হবেন? তাঁরা বিলাসী জীবনযাপন করছেন। দেখে নেওয়া যাক এই ধারণা কতটা সত্য। তাঁদের বাড়ি কেমন ও কত অঙ্কের অর্থে তৈরি।

শাহরুখ খানের মান্নাত
ভারতের মুম্বাইয়ে বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের বাসভবনের নাম ‘মান্নাত’। এই ভবনটি সব সময়ই থেকেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। পর্যটক ও ভক্তরা কিং খানের দেখা পেতে নিয়মিতই সেখানে যান। নজরকাড়া এই বাংলোটি নির্মিত হয়েছে ইতালীয় স্থাপত্যবিদ্যায়। এটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ২০০ কোটি রুপিরও বেশি এবং নির্মাণে সময় লেগেছে চার বছরেরও বেশি।

অমিতাভ বচ্চনের জলসা
বলিউড মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের বাসস্থান ‘জলসা’ অবস্থিত মুম্বাইয়ের জুহুতে। এটিও বেশ আলোচিত স্থান। এখানে কন্যা আরাধ্য ও স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনকে নিয়ে থাকেন বলিউড তারকা অভিষেক বচ্চন। অমিতাভের স্ত্রী জয়া বচ্চন তো রয়েছেনই। এই ভবনটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১২০ কোটি রুপিরও বেশি।

সালমানের প্যানভেল খামারবাড়ি
বলিউড সুপারস্টার সালমান খান বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট ‘গ্যালাক্সি’র বাসিন্দা। তবে তিনি এই মুহূর্তে নিজের প্রিয় প্যানভেল ফার্ম হাউস’-এ সামাজিক দূরত্ব বজায়কল্পে অবস্থান করছেন। ১৫০ একর জমিতে গড়ে ওঠা এই খামারবাড়িতে রয়েছে পুল, সুবিশাল জিম ও পশুপাখিদের অবাধ বিচরণক্ষেত্র। এ অভিনেতা প্রায়ই সেখানে পার্টি দেন। খাবার আসে ফসলি জমি থেকে। এককথায় বিলাসবহুল জীবনযাপন ভাইজানের।

প্রিয়াঙ্কা-নিকের এল এ রেসিডেন্স
বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও নিক জোনাস সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াতে নতুন আবাস গড়েছেন। ‘এল এ রেসিডেন্স’ নামের ওই বাসভবনেই থাকছেন তাঁরা। এটি কিনতে এই দম্পতি ব্যয় করেছেন ২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জোর সচেতনতা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা। সম্প্রতি ‘ফ্যামিলি’ নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে, যেখানে প্রিয়াঙ্কা ও স্বামী নিককে বিলাসবহুল বাড়িতে পোষা প্রাণীসহ দেখা যায়।

কঙ্গনা রনৌতের মানালি হাউস
বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌতের বাস হিমাচল প্রদেশে তাঁর ‘মানালি হাউস’-এ। পাহাড়ের বুকে এই আবাস কোয়ারেন্টিনের জন্য বেশ উপযুক্ত। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২০০ মিটার উপরে সাতটি শয়নকক্ষ রয়েছে সাত হাজার ৬০০ স্কয়ার ফিটের বাড়িটিতে। নজরকাড়া এমন একটি বাড়ির মালিক যে কেউ হতে চাইবেন। সূত্র : এনটিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত