প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যুব মহিলা লীগ নেত্রীর খুনি মাজেদ প্রীতি, সমালোচনার ঝড়

বাংলাদেশ প্রতিদিন : [২] রাজধানীর খিলক্ষেত থানা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আইরিন রিয়ার ‘ফাঁসি কার্যকর হওয়া বঙ্গবন্ধুর খুনি আবদুল মাজেদ’ প্রীতিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় বইছে।

[৩] শনিবার দিবাগত রাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি আবদুল মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর খিলক্ষেত থানা যুব মহিলা লীগের সভাপতি নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন, ‘ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন, বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হয়েছে। আলহামদুল্লিাহ! আল্লাহ ওনাকে জান্নাতবাসী করুন।

[৪] এ স্ট্যাটাস দেওয়ার সাথে সাথে গতরাত থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় শুরু হয়।
ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান সজীব লিখেছেন, ‘আরেক কুলাঙ্গারকে দেখুন! এই মহিলা বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টের খুনি কুলাঙ্গার মাজেদের জন্য জান্নাত চেয়েছে! এভাবেই হাজার হাজার মোস্তাকের অনুসারী আওয়ামী লীগে প্রবেশ করেছে! সে আবার খিলক্ষেত থানা যুব মহিলা লীগের সভাপতি, তার প্রোফাইল তথ্য অনুযায়ী। এর দায় কার?’

[৫] ছাত্রলীগের সাবেক নেত্রী রুশি চৌধুরী লিখেছেন, ‘আওয়ামী যুব মহিলা লীগের খিলক্ষেত থানা ইউনিটের সভাপতি আইরিন রিয়া!!!! বঙ্গবন্ধুর খুনি, বঙ্গবন্ধুর পরিবারের খুনি, খুনি মাজেদের জান্নাত কামনাকারী একজন মুমিন বান্দা যুব মহিলা লীগের এই আরেক কালি মাখানো ভ্রু এর মহিলা। পোস্ট আবার এডিটও করেছে! কেউ বলবেন না যে এইটা রিয়েল আইডি না। এই মহিলাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হউক। “এর দায় সংগঠন নেবে না টাইপ কোন প্রেস রিলিজ চাই না!” “সরাসরি বহিষ্কার চাই।” যুব মহিলা লীগে থেকে এই ধরনের মহিলাদের ঝাটায় বের না করা পর্যন্ত পাপিয়াদের সংখ্যা বাড়বেই। আইডি লিংক (দুইটা আইডি, দুইটায়ই সেইম পোস্ট ছিল)।’

শুধু সজীব বা রুশি চৌধুরীই নয়, তানভির আহমেদ রাসেল লিখছেন, ‘খিলক্ষেত থানা মহিলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আইরিন রিয়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্যতম হত্যাকারী খুনি মাজেদের জান্নাতবাসী দেখতে চান বলে পোস্ট দেয়, প্রতিটি পদে পদে হাইব্রিড জামাতি বামাতিতে ভরে গেছে, একদম পাপিয়ার কপি পেস্ট এই আইরিন রিয়া’।

[৬] সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হওয়ার পর গত রাতেই স্ট্যাটাসটি ডিলিট করে দুঃখ প্রকাশ করে আইরিন রিয়া লেখেন, ‘(আমি খুবই দুঃখিত!) কাল রাতে আমি টিভিতে খবর দেখতে দেখতে, বঙ্গবন্ধু ও তার পবিবারের খুনি মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হয়েছে। সেটা নিয়ে আমি একটা পোস্ট করেছিলাম, সেই পোস্ট নিয়ে অনেকেই আমাকে ভুল বুঝেছেন, দয়া করে কেউ আমাকে ভুল বুঝবেন না প্লিজ! তার পরেও আমি বলবো আমার যদি কোনো ভুল হয়ে থাকে, তবে প্লিজ সবাই আমাকে ক্ষমা করে দিবেন । আল্লাহ জন্নাতবাসী করুন বলতে আমি বুঝাতে চেয়েছিলাম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার পরিবারকে যেন আল্লাহ জান্নাতবাসী করেন। কিন্তু খুনি মাজেদের ফাঁসির খবর শুনতে শুনতে দেখতে দেখতে লিখতে ছিলাম, তাই হয়তো লেখায় কিছুটা মিস্টেক হয়ে গেছে। মিস্টেক হওয়ার জন্য আমি আবারও ক্ষমা প্রার্থী, প্লিজ কেউ আমাকে ভুল বুঝবেন না। আমরা আওয়ামী লীগ পরিবারের সদস্য এবং আওয়ামী লীগকে মনে প্রাণে বিশ্বাস করি, ভালবাসি, বুকে ধারণ করি, লালন করি, এবং দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে প্রচণ্ড কষ্ট করি সর্বক্ষণ, তাই সবার কাছে আমার বিনীত অনুরোধ রইলো, প্লিজ আমার সম্পর্কে ভালো ভাবে না জেনে, না বুঝে কোনো খারাপ মন্তব্য করবেন না। অনুরোধ রইলো, আপনাদের সময় হলে, ভালো করে আমার আইডিটা একটু ঘেটে দেখবেন প্লিজ, যদি আমার আইডিতে এমন কোনো তথ্য পান, যা নিয়ে আমার সমালোচনা করা যায় তখন কইরেন, আমি আপনাদের কিছুই বলবো না। সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন, এবং আল্লাহর রহমতে আমরা সবাই এই মহামারী করোনা থেকে মুক্তি পাই।

সর্বাধিক পঠিত