প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশকে জরুরিভিত্তিতে ১০ কোটি ডলার অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক

সাইদ রিপন: [২] শনিবার বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিস থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ‘জরুরি প্রতিক্রিয়া এবং মহামারী প্রস্তুতি’ শীর্ষক প্রকল্পে এ ঋণ অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক। দেশীয় মুদ্রায় এ অর্থের পরিমাণ প্রায় ৮৫০ কোটি টাকা (প্রতি ডলার ৮৫ টাকা ধরে)।

[৩] বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সারাবিশ্বে মহামারি রূপ নিয়েছে। উন্নত দেশগুলোও এই মহামারি মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে মহামারি প্রতিরোধ, শনাক্তকরণ এবং প্রতিক্রিয়া জানাতে এবং জনস্বাস্থ্যের জরুরি অবস্থার মোকাবিলায় এ অর্থ দিয়েছে সংস্থাটি। প্রকল্পটি দরিদ্রতম দেশগুলোর জন্য বিশ্বব্যাংকের তহবিল ইন্টারন্যাশনাল ডেভলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন (আইডিএ) থেকে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের কোভিড-১৯ ফাস্ট ট্র্যাক সুবিধার মাধ্যমে অর্থায়ন করা হয়। পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ডসহ ৩০ বছরে এই ঋণ পরিশোধ করতে হবে বাংলাদেশকে।

[৪] বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন বলেছেন, করোনা ভাইরাস প্রসারের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করছে। এই প্রকল্পটি করোনা মহামারির প্রাদুর্ভাব রোধে বাংলাদেশের জাতীয় পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহায়তা করবে। পাশাপাশি এটি নজরদারি এবং ডায়াগনস্টিক সিস্টেমগুলো রয়েছে কিনা তা নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

[৫] বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, এ অর্থের মাধ্যমে নির্বাচিত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, সংক্রামক রোগ হাসপাতাল এবং বাংলাদেশ ট্রপিকাল ও সংক্রামক রোগ ইনস্টিটিউটসহ অন্যদের পুনর্বাসন করা হবে। নতুন ওয়ার্ড স্থাপন এবং নিবিড় পরিচর্যা ইউনিট ক্যাম্প স্থাপন, ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম, ভেন্টিলেটরসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম এবং মনোনীত হাসপাতালে ওষুধ সরবরাহে সহায়তা করবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত