প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অসৎ ব্যবসা, খাদ্যে ভেজাল, ঘুষ, জবরদখল কি করোনার চেয়ে বড় ভাইরাস?

মোজাফফর হোসেন : একটা ভাইরাস, যার অস্তিত্ব মানুষের দৃষ্টিসীমার বাইরে, মানুষ তার দৃশ্যহীন অস্তিত্বকে বিশ্বাস করে মাত্র ক’টা দিনের মধ্যে পৃথিবীর সিস্টেম বদলে ফেলেছে। দুটো বিশ্বযুদ্ধও এতো অল্প সময়ে এতোগুলো মানুষের জীবনকে এভাবে বদলে দিতে পারেনি। আকাশপথ বন্ধ, মিল কলকারখানা বন্ধ, বেকার স্থলপথ-জলপথ, আন্তর্জাতিক ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ, পৃথিবীর অধিকাংশ মানুষ গৃহবন্দি। মক্কা-মদিনায় মসজিদ বন্ধ। হজ স্থগিত। বিশ্বের মুসলমানরা কখনো ভাবতে পেরেছে? বন্ধ ভ্যাটিকান, অসংখ্য মন্দির-গির্জা। বন্ধ সব যুদ্ধ-সংঘাতও।
একটা অদেখা ভাইরাসের কারণে যদি পুরো পৃথিবী এভাবে মুহূর্তে বদলে যেতে পারে, তাহলে যে সব বড় বড় ভাইরাস আমরা দেখতে পাই, যা এই ভাইরাসের চেয়ে অনেক বেশি ক্ষতিকর, যার ফলে কয়েক লাখ নয়, পৃথিবীর শতকোটি মানুষ বিপন্ন, যার ফলে মৃত্যু কোনো সংখ্যা দিয়ে নির্ণয় করা যাবে না, সে সব দৃশ্যমান চেনা ভাইরাসের কারণে আমাদের বৈশ্বিক সিস্টেমের কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না কেন? যুদ্ধ-সংঘাত : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? দুর্নীতি-দুঃশাসন : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? খুন-ধর্ষণ : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? জঙ্গি-সন্ত্রাস, করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? সম্পদের অসম বণ্টন অসুস্থ পুঁজিবাদ, করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? ধর্মীয় উগ্রতা-কুসংস্কার : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? ধর্মীয়-জাতিগত অসহিষ্ণুতা : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? অসৎ ব্যবসা, খাদ্যে ভেজাল, ঘুষ, জবরদখল : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস? পরিবেশ, প্রকৃতি ও জলবায়ুর বিপর্যয় : করোনা কি এর চেয়ে বড় ভাইরাস?
মানুষ চাইলে কিনা পারে, তা মাত্র ত্রিশ দিনে পৃথিবী দেখে নিলো। অন্তত দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে মানুষ ঘুরে দাঁড়াবেই, করোনার কারণে আমরা যদি কিছু পেয়েই থাকি তা হলো এই ‘বিশ্বাস’। কিন্তু হতাশার বিষয় হলো : যারা মিথ্যাচার করে তারা এই বৈশ্বিক মানবিক বিপর্যয়ের মধ্যেও তা করে যাচ্ছে, এই বিপর্যয় নিয়েও রাজনীতি করছে, অসৎ লোকরা সুযোগ খুঁজছে, যথারীতি মূর্খ ধার্মিকরাও চিকিৎসা বিজ্ঞানের পুরো আয়োজনটা নষ্ট করে দিতে উঠেপড়ে লেগেছে। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত