প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সরাইলে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিলেন ইউএনও, দুর্ভোগে মানুষ

আরিফুল ইসলাম, সরাইল : [২] ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স এলাকা দিয়ে বয়ে যাওয়া দক্ষিণ আরিফাইল গ্রামের কাচারিপাড়ার বাসিন্দাদের চলাচলের রাস্তাটি বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এস এম মোসা। এতে চরম দূর্ভোগে পড়েছেন ওই এলাকায় বসবাসরত শত শত মানুষ।

[৩]গত তিন দিন আগে এ রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়ে জনসাধারণের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় বিশেষ করে মুসল্লীরা পড়েছেন বেকায়দায়। তাঁরা উপজেলা পরিষদ চত্বরের মসজিদে নামাজ আদায় করতে আসতে পারছেন না। এ বিষয়ে সমাধান পেতে সেই গ্রামের মানুষেরা জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

[৪] তবে এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এস এম মোসা সাংবাদিকদের জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রশাসনপাড়ায় বাড়তি লোকের যাতায়াত এড়াতেই সেই চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া প্রশাসনপাড়ার উপর দিয়ে গ্রামের লোকজনের চলাচলের রাস্তা থাকতে পারে না। এতে অফিস পাড়ায় নিরাপত্তার ঝুঁকি থাকে। এ গ্রামের মানুষের চলাচলের জন্যে ভিন্ন রাস্তা রয়েছে।

[৫] মসজিদে মুসল্লীদের নামাজ আদায়ের ব্যাপারে ইউএনও জানান, সেই রাস্তা এখন বাঁশের বেড়ায় বন্ধ করা হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে সেখানে দেয়াল নির্মাণ করা হবে। তখন উপজেলা পরিষদ চত্বরের মসজিদে সেই গ্রামের মুসল্লীদের নামাজ আদায়ের সুবিধার্থে সেখানে একটি পকেট গেইট রাখা হবে।

[৬] অপরদিকে কাচারিপাড়ার বেশকয়েকজন প্রবীণ লোক জানান, দীর্ঘ দিনের জন চলাচলের রাস্তা তিন দিন আগে বন্ধ করে দিয়েছেন ইউএনও। এ রাস্তা দিয়ে আমাদের বাপ-দাদারা চলাচল করে এসেছেন। তাদের দাবি, এখানকার প্রশাসনপাড়ার উপর দিয়ে শুধু এ গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তাই নয়, জনসাধারণের চলাচলের আরও একাধিক রাস্তা রয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যানের বাড়ির রাস্তাও রয়েছে প্রশাসনপাড়ার উপর দিয়ে। যদি নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে এ রাস্তা বন্ধ করা হয়, তাহলে প্রশাসনপাড়ার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া সকল রাস্তা-ই বন্ধ করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত