প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিমান থেকে নেমেই সেনা বাহিনীর তত্বাবধানে যাবেন যাত্রীরা

ইসমাঈল হুসা্ইন ইমু : [২] আশকোনা হাজী ক্যাম্পেরকোয়ারেন্টাইন সেন্টারে দায়িত্বে থাকা মেজর রাকিব বলেন, সকাল থেকে এখনো কাউকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে আনা হয়নি। তবে এ বিষয়ে পরে আইএসপিআর এর পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে অবহিত করা হবে।

[৩] আইএসপিআর জানায়, বিমান থেকে নেমে ইমিগ্রেশন শেষের পরই যাত্রীদের সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে নেয়া হবে। বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের বাংলাদেশে সংক্রমণ ও বিস্তৃতির সম্ভাব্যতা এবং প্রেক্ষাপট বিবেচনায় বাংলাদেশ সরকার সেনাবাহিনীকে দুইটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছে।

বিমানবন্দর সংলগ্ন হাজী ক্যাম্প এবং উত্তরার দিয়াবাড়ি (সেক্টর ১৮) সংলগ্ন রাজউক এপার্টমেন্ট প্রকল্পে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে দুটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে।

[৩] এ কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের প্রয়োজনীয় স্ক্রিনিং করত: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্বাচিত ব্যক্তিবর্গকে বিমানবন্দরে প্রয়োজনীয় ইমিগ্রেশন কার্যক্রম শেষে সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হবে।

[৪] হস্তান্তরের পর সেনাবাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ সকল যাত্রীদের বিমান বন্দর থেকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে হস্তান্তর, ডিজিটাল ডাটা এন্ট্রি কার্যক্রম সম্পন্ন, কোয়ান্টোইন সেন্টারে থাকাকালে আহার, বাসস্থান, চিকিৎসা এবং অন্যান্য আনুষাঙ্গিক সেবা দেয়া হবে।

[৫] এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে সেনাবাহিনীকে সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য মন্ত্রণালয়/সংস্থা/অধিদফতর/বাহিনী প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত