প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সচেতনতা কার্যক্রমে গতিশীলতা আনয়ন করবে জলবায়ু বাস, বললেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী

তাপসী রাবেয়া : [২] পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো: শাহাব উদ্দিন বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন এর একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ জলবায়ু বাস। এ বাসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে অবহিতকরণ ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

[৩] ডিজিটাল এলইডি ডিসপ্লে, মোবাইল থ্রিডি সিনেমা সিস্টেম, ইন্টারেক্টিভ কিয়স্ক, গ্রিন এনার্জির জন্য সোলার প্যানেল , ওয়াইফাই ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক তথ্য সম্বলিত আর্কাইভসহ বিশেষ এ জলবায়ু বাসটি তৈরি করা হয়েছে। পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে তৈরিকৃত সচেতনতামূলক টেলিভিশন বিজ্ঞাপন, রেডিও বিজ্ঞাপন, থিম সং এবং ডকুমেন্টারি জলবায়ু বাসের মাধ্যমে দেশব্যাপী প্রচার করা হবে।

[৪] জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী রোববার বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট (বিসিসিটি) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্ভাবনী উদ্যোগ ‘জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড গঠন’ বিষয়ে প্রণীত ব্র্যান্ডিং পরিকল্পনা বাস্তবায়ন” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এক কোটি পঞ্চাশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সংগৃহীত জলবায়ু বাস এর কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে, প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

[৫] উদ্বোধনকালে অন্যান্যের মধ্যে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব জিয়াউল হাসান এনডিসি, প্রকল্প পরিচালক মোঃ মোখতার আহমেদ বক্তব্য রাখেন।

[৬] মন্ত্রী মো: শাহাব উদ্দিন জানান, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবেলায় বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। সরকার জলবায়ু পরিবর্তন জনিত ঝুঁকি মোকাবেলায় বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন কৌশল ও কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে।

[৭] বিসিসিএসএপি-২০০৯ এ বর্ণিত কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য ২০০৯-১০ অর্থবছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিজস্ব উদ্যোগে রাজস্ব বাজেট হতে জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড (সিসিটিএফ) গঠন করা হয়।

[৮] মন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে স্থানীয় জনগণের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তন সহিষ্ণু বিভিন্ন প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও
সম্প্রসারণ করার লক্ষ্যে জলবায়ু ট্রাস্ট তহবিলের ব্যবহার করা হছে। সরকারের রাজস্ব বাজেট হতে ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে শুরু করে ডিসেম্বর, ২০১৯ পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার দুইশত চৌষট্টি কোটি তেতাল্লিশ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে সাতশত বিশ টি (৬৫৯টি সরকারী এবং ৬১টি বেসরকারী) প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। গৃহীত প্রকল্পের মধ্যে ৩৭৫টি (সরকারী-৩১৮টি, বেসরকারী-৫৭টি ) প্রকল্প সমাপ্ত হয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে গৃহীত প্রকল্পসমূহের মধ্যে ৩টি প্রকল্প জাতীয় পুরষ্কার এবং ১টি প্রকল্প আন্তর্জাতিক পুরষ্কার লাভ করেছে। ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে প্রকল্পসমূহ জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখছে।

[৯] তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন রোধে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে এবং সচেতন হতে হবে। আমার, আপনার ছোট ছোট পদক্ষেপ পরিবেশ সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখতে পারে। সম্পাদনা : তিমির চক্রবর্ত্তী

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত