প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইসির বেঁধে দেয়া স্থানেই পোস্টার ও মাইকিং করে ঢাকা-১০ আসন উপনির্বাচনে চলছে ব্যতিক্রমী প্রচারণা

আসিফ কাজল : [২] ২১ মার্চ ঢাকা ১০ আসনের উপনির্বাচনে চলছে নির্বাচনী প্রচারণা। ২১ মার্চ এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচনী এলাকায় নেই পোস্টারের বাহুল্য। গেল সিটি নির্বাচনে লেমিনের্টিং পোস্টার ও মাইকিং এর কারণে যে পরিবেশ দূষণ হয়েছিলো এবার তা রুখতেই নির্বাচন কমশিন হাতে নিয়েছে ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ।

[৩] এ আসনে প্রচারণা চালাতে রাজধানীর ২১টি স্থানে বিলবোর্ড সাজিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সেখানে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ অন্যান্য দলের প্রার্থীরা পোস্টার লাগিয়েছেন।

[৪] আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও ঢাকা-১০ রিটার্নিং কর্মকর্তা এ এম শাহাতাব উদ্দিন বলেন, গেল সিটি নির্বাচনে রাজধানীর আকাশ ঢেকে গিয়েছিলো। শব্দদূষণের মাত্রা এমন পর্যায়ে পৌছেছিল যার ফলে মানুষের মধ্যে চরম বিরক্তি কাজ করেছে। এ থেকে মুক্তি পেতেই নির্বাচন কমিশন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তিনি আরও বলেন, ৬টি ওয়ার্ডে ৬টি ক্যাম্প তারা করতে পারে। শুধুমাত্র সেখানেই তারা মাইকিং করবে। এ কারণে যত্রতত্র মাইকিং আর হচ্ছে না।

[৫] করোনা ভাইরাসের কারণে যখন সারাদেশ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। মুজিব শতবর্ষের অনেক অনুষ্ঠান পিছিয়ে দেয়া হয়েছে এ মূহুর্তে প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণা সম্পর্কে তিনি বলেন, আমরা সবসময় স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। তারা আমাদের এ বিষয়ে সতর্ক করলে অবশ্যই পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে দেখুন এখনো কিন্তু গণপরিবহনে মানুষ চলাচল করছে। আমাদের ঘনজনবসতিপূর্ণ আমাদের দেশের অবস্থাও সবাইকে বিবেচনা করতে হবে।

[৬] জানা যায়, প্রথমবার পাইলট প্রকল্প হিসেবে এ কার্যক্রম হাতে নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সফল হলে সারাদেশে এ কার্যক্রম হাতে নেয়া হতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত