প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দিল্লির রক্তক্ষয়ী দাঙ্গায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভূমিকা নিয়ে মার্কিন গণমাধ্যমের কটাক্ষ

মশিউর অর্ণব: [২] ভারতের রাজধানী দিল্লির উত্তর-পূর্ব অংশে চলমান সহিংসতার ঘটনা ফলাও করে প্রচার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি গণমাধ্যম। ওয়াশিংটন পোস্ট, নিউইয়র্ক টাইমস

[৩] একজনকে লাঠিপেটা করার ছবি দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস তাদের শিরোনাম করেছে, ‘দিল্লির রাজপথ, হিন্দু ও মুসলমানের যুদ্ধক্ষেত্র’।

[৪] এই প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার ভারত সফরকালে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দিল্লির বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ভ্রমণে ব্যস্ত ছিলেন। দিল্লির অন্য অংশের রক্তক্ষয়ী সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার বিন্দুমাত্র প্রভাব তাদের কর্মসূচিতে পড়েনি।

[৫] নিউইয়র্ক টাইমসের অপর একটি প্রতিবেদনে মোদী ও ট্রাম্পের ছবি দিয়ে বলা হয়েছে, এমন একটি সময়ে এই সফর অনুষ্ঠিত হয়েছে, যখন দিল্লির অন্য অংশে ধর্মীয় বিভাজনের কারণে সৃষ্ট সহিংসতা মানুষের জীবন পুরোপুরি বিপন্ন করে তুলেছে।

[৬] মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল এমএসএনবিসি তাদের খবরে উত্তর-পূর্ব দিল্লির চলমান সহিংসতার ঘটনাকে প্রাধান্য দিয়েছে।

[৭] এই সহিংসতাকে ২০০২ সালে সংঘটিত গুজরাটের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার সাথে তুলনা করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে টেলিভিশন চ্যানেলটি।

[৮] ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের শিরোনাম করেছে, ‘ভারতে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা’।

[৯] প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, হিন্দু আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করার জন্য সাম্প্রতিক সময়ে নরেন্দ্র মোদী ভারতে বেশকিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত