প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিভিন্ন স্কোয়াড্রন ও ইউনিটকে পতাকা প্রদান করলেন বিমান বাহিনী প্রধান

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : [২] বাংলাদেশ বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুর অর্ন্তগত ৩৫ স্কোয়াড্রন, ২০৫ রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিট এবং শারীরিক যোগ্যতা স্কুলকে তাদের কর্তব্য নিষ্ঠা ও কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি স্বরূপ ‘বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পতাকা’ প্রদান করেছেন।

[৩] বিমানবাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধু এর প্যারেড গ্রাউন্ডে এসে পৌঁছলে বিমান বাহিনী প্রধানকে স্বাগত জানান ঘাঁটির এয়ার অধিনায়ক, এয়ার ভাইস মার্শাল মো. সাঈদ হোসেন। পতাকা প্রদানের এই অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনী প্রধান বঙ্গবন্ধু ঘাঁটি আয়োজিত একটি মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ উপভোগ করেন। কুচকাওয়াজে নেতৃত্ব দেন উইং কমান্ডার মো. শফিকুল হাসান খান।

[৪] বিমিান বাহিনী প্রধান বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানসহ বাংলাদেশ বিমান বাহিনী তথা বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের সকল বীর শহীদদের স্মরন করেন। এছাড়াও তিনি বিমান বাহিনীর ৩৫ স্কোয়াড্রন, ২০৫ রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিট এবং শারীরিক যোগ্যতা স্কুলএর গৌরবোজ্জল ইতিহাস তুলে ধরেন। তিনি বাংলাদেশের প্রতিরক্ষায় ৩৫ স্কোয়াড্রনের সক্ষমতার প্রশংসা করেন। বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর সকল ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্রপাতির সুষ্ঠু রক্ষণাবেক্ষণ, মেরামত এবং মাননিয়ন্ত্রণে ২০৫ রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিট এর গুরুত্বপূর্ণ অবদানের কথাও তিনি উল্লেখ করেন। এছাড়াও তিনি বিমান বাহিনীর সদস্যদের শারীরিক যোগ্যতা বজায় রাখাসহ ক্রীড়া ক্ষেত্রে যথাযথ প্রশিক্ষণ প্রদানে শারীরিক যোগ্যতা স্কুল এর গুরুত্বপূর্ণ অবদানের প্রশংসা করেন।

[৫] বিমানবাহিনীর পতাকা অর্জনকারী স্কোয়াড্রন এবং ইউনিটের প্রতিটি সদস্যকে বিমানবাহিনী প্রধান অভিনন্দন জানান এবং বিমান বাহিনীর সম্মানের প্রতীক হিসেবে প্রদানকৃত কালার এর মর্যাদা ও সম্মান অক্ষুন্ন রাখতে সকলকে সচেষ্ট থাকতে বলেন। অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার এবং বিমান বাহিনীর অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত