প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অপরাধে জড়িত বলেই বাউল শরিয়তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, বলেছেন প্রধানমন্ত্রী

ডেইলি স্টার : বাউল শিল্পী শরিয়ত সরকার অপরাধে জড়িত থাকায় গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সংসদে আজ বুধবার (২২ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সংসদ সদস্য হাসানুল হক ইনুর প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী জানান, তিনি (শরিয়ত সরকার) যেহেতু গ্রেপ্তার হয়েছেন, নিশ্চয়ই হয় তিনি কোনো অপরাধে যুক্ত ছিলেন অথবা কোনো অপরাধ করেছেন।

বাউল গান গাওয়া কোনো অপরাধ নয় বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

তবে যদি কোনো বাউল শিল্পী কোনো অপরাধে জড়িত থাকেন তবে আইন তার নিজস্ব পথেই চলবে। এর সঙ্গে গানের কোনো সম্পর্ক নেই বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইনুর কাছে প্রশ্ন রাখেন, বাউল শিল্পীরা কি আইনের ঊর্ধ্বে আর তারা কি কখনও অপরাধ করতে পারেন না?

বিশ্ব সংস্কৃতিতে বাউল সংগীতের নিজস্ব জায়গা আছে জানিয়ে শিল্পীদের এমন কিছু না করার উপদেশ দেন প্রধানমন্ত্রী যা বাউল গানকে প্রশ্নের মুখে ফেলে।

প্রধানমন্ত্রী এসময় হুঁশিয়ার করে বলেন, বাউল শিল্পীদের বিরুদ্ধে কেউ যদি কোনো অপরাধ করে তবে সরকার অপরাধীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেবে।

অপ্রয়োজনে চুল কেটে দেয়া কিংবা গান বাজনায় বাধা দেয়া হলে কোনো ভাবেই মেনে নেয়া হবে না বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে ১১ জানুয়ারি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় বাউল শিল্পী শরিয়ত সরকার (৪০)কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় সরকার বদ্ধপরিকর

ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য মাহফুজুর রহমানের এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় বদ্ধপরিকর।

জনগণের জাম-মালের সুরক্ষায় সরকার আইন সংশোধনের মাধ্যমে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় কার্যকর পদক্ষেপ নিয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

লিখিত বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী জানান, আইনের চোখে সবাই সমান এবং কোনো অপরাধী অপরাধ করে পার পাবে না, জনগণের মধ্যে এই আস্থার জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার।

সর্বাধিক পঠিত