প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুজিববর্ষ উপলক্ষে দেশের সব সরকারি হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের আইসিইউ শয্যা দ্বিগুণ করার কথা জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শাহীন খন্দকার : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ২৫০ শয্যার ডায়ালাইসিস সেন্টারও চলতি বছরই উদ্বোধন করা হবে। তিনি বলেন, দুই হাজার চিকিৎসকের পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে, যার নজির একেবারেই বিরল। ১০ হাজার নার্স নিয়োগ দিয়েছে সরকার। প্রয়োজনে আরো বেশি দেয়া হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক হাসপাতাল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশে সরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হাসপাতালের রোলমডেল হচ্ছে এই নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল। এ হাসপাতালে প্রতিদিন প্রায় ২ হাজার রোগীর সেবা দেয়।

সোমবার শেরেবাংলা নগর আগারগাঁও ১০০ শয্যা বিশিষ্ট স্ট্রোক ইউনিট এর পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ এর সভাপতিত্বে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস এন্ড হসপিটাল স্ট্রোক ইউনিটের উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক্তারদের উদ্দেশ্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে চাইলে প্রয়োজন সোনার মানুষ। বাংলাদেশের একটি মানুষ যেনো স্বাস্থ্যসেবা নিতে বিদেশ না জান সেই লক্ষ্যে কাজ করুন। কর্মরত ডাক্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন দেশের বেসরকারি হাসপাতালের চেয়ে উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার দাবি জানান।

মন্ত্রী বলেন, এই প্রথম একশত বেডের অত্যাধুনি বিশ্বমানের স্ট্রোক ইউনিট চালু হলো যা চায়না ব্যতিত এশিয়াতে নেই। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে সারা দেশে ৫হাজার ৫শত ডাক্তারসহ দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারি নিয়োগ দেয়া হয়েছে। চলতি বছর দুই বিভাগে ২০ হাজারের অধিক নিয়োগ দেয়া হবে। এসময়ে মন্ত্রী বলেন আগামীতে সারাদেশে ১২ হাজার শয্যার নিরোসায়েন্সেস হসপিটাল করা হবে বলে জানালেন।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ পরিচালক সভাপতিত্বে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক অধ্যাপক ডা: আবুল কালাম আজাদ বলেন, ১৮ কোটি মানুষকে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে একশ শয্যার স্ট্রোক হাসপাতালটি উপহার বললেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত