প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শেখ হাসিনা আমাদের কাছে মহামানবী, বললেন গণপূর্তমন্ত্রী

অনলাইন রিপোর্ট: গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, শেখ হাসিনা রাজনীতিতে পরিপক্ব, প্রশাসনে অসাধারণ অভিজ্ঞ, রাষ্ট্র পরিচালনায় সুদক্ষ রাষ্ট্রনায়ক, আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বিশ্ব নেতৃত্বের আসনে আসীন এবং বাঙালি জাতির জন্য ভালোবাসা ছড়িয়ে দিয়ে মায়ের আসনে অধিষ্ঠিত একজন মানুষ। তিনি বঙ্গবন্ধুর রক্ত ও আদর্শের উত্তরাধিকার। বাংলাদেশকে আজকে অনন্য উচ্চতায় যিনি নিয়ে এসেছেন, তিনি আমাদের কাছে মহামানবী। তিনিই শেখ হাসিনা।

রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে শেখ হাসিনা: বাংলাদেশের স্বপ্নসারথি শীর্ষক আলোকচিত্র ও শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ সব কথা বলেন।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি এবং আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট নাট্যজন ও আইটিআই বিশ্বকেন্দ্রের সাম্মানীত সভাপতি রামেন্দু মজুমদার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের অধ্যাপক শিল্পী জামাল আহমেদ।

গণপূর্তমন্ত্রী আরও বলেন, নৈতিকতা ও মূল্যবোধ জাগ্রত করতে না করতে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি, দালান-কোঠা, রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ-কালভার্ট করলে হবে না। নৈতিকতার অবক্ষয় থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতি, অনৈতিকতা, মাদক, সন্ত্রাস ও ক্যাডার রাজনীতির বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান নিয়েছেন। কে তার আত্মীয়, কে তার দলের নেতা সেটা তার কাছে মুখ্য নয়। তিনি পরিষ্কার ভাষায় বলেছেন, অপরাধ যিনি করবেন তিনি অপরাধী। এটা একমাত্র শেখ হাসিনার পক্ষেই সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ আজ একটি স্বর্ণালী অধ্যায়ে আছে। এই স্বর্ণোজ্জ্বল অধ্যায়ের রচনা শেখ হাসিনার পক্ষেই সম্ভব হয়েছে। তিনি স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করার সারথি। অনন্য, অসাধারণ শেখ হাসিনা গোটা বাংলাদেশের সবার অভিভাবকের স্থানে অধিষ্ঠিত। তিনি বিশ্ব নেতৃত্বের আসনে আসীন। আসুন আমরা তার নেতৃত্বে অপার সম্ভাবনার বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাই, যেখানে ক্ষুধা, দারিদ্র্য, বৈষম্য থাকবে না। থাকবে না নারী-পুরুষ কিংবা ধনী-দরিদ্যের বিভেদ।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, আমি সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি, রাজনীতির ঊর্ধ্বে একবার শেখ হাসিনাকে বিবেচনা করে দেখুন। বাংলাদেশকে অর্থনীতি, অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা, শিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, দারিদ্র্য দূরীকরণ, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী, জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ প্রভৃতি ক্ষেত্রে শেখ হাসিনা কতটা উঁচুতে নিয়ে গেছেন। তিনি বিশ্ব পরিমণ্ডলে শ্রেষ্ঠতম সৎ ও পরিশ্রমী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন। কতটা যোগ্যতা থাকলে সেখানে পৌঁছানো সম্ভব।

সূত্র: যুগান্তর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত