প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনী বিজ্ঞাপনে দিনে ৪২ লাখ ডলার ব্যয় করছেন মাইকেল ব্লুমবাগ

রাশিদ রিয়াজ : গত ২৫ নভেম্বর টেলিভিশন, ফেসবুক ও গুগলে নির্বাচনী বিজ্ঞাপন বাবদ ১১৭.৮ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী মাইকেল ব্লুমবার্গ। তার এই নির্বাচনী বিজ্ঞাপনী ব্যয় অন্য চার নির্বাচনী প্রার্থী সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স, এলিজাবেথ ওয়ারেন ও মেয়র পিটি বাটিগিয়েগের সম্মিলিত ব্যয়ের চেয়ে বেশি। ব্লুমবার্গ নির্বাচনে কেমন সমর্থন পাবেন সে নিয়ে বিভিন্ন জরিপ বলছে তার প্রতি সমর্থন থাকলেও তিনি দেরিতে নির্বাচনী আসরে এসেছেন। প্রদেশের পর প্রদেশ ভিত্তিক নির্বাচনী কৌশল নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার পরিবর্তে ব্লুমবার্গ সরাসরি জাতীয় কৌশল নিয়েই আগামী বছরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আগাচ্ছেন। স্পুটনিক ইন্টারন্যাশনাল

কুইনিপিয়াক ইউনিভার্সিটির জরিপের এক বিশ্লেষক ম্যারি স্নো বলেছেন, তার এত বিপুল বিজ্ঞানপনী খরচ নির্বাচনে কি ধরনের প্রভাব ফেলে তাও দেখার বিষয়। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পও তার নির্বাচনী প্রচারনায় এধরনের বিপুল ব্যয় ও জাতীয় কৌশল নিয়ে এগিয়ে নির্বাচনী সফলতা পেয়েছিলেন। এমারসন কলেজের সহকারি অধ্যাপক ও নির্বাচনী বিশ্লেষক স্পেন্সার কিমবল মনে করেন ব্লুমবার্গের এত বিপুল বিজ্ঞাপনী ব্যয় অবশ্যই নির্বাচনে বড় ধরনের প্রভাব ফেলবে। কারণ তার নির্বাচনী ব্যয় করার ধরনটাই আলাদা।

এদিকে মাইকেল ব্লুমবার্গ অন্তত ৩শ স্টাফ সদস্যকে নির্বাচনী প্রচারণার জন্যে বেতন দিচ্ছেন। যাদের মধ্যে ২শ জন কাজ করছেন ব্লুমবার্গের নির্বাচনী প্রচার সদর দফতরে। নিচের সারির নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত স্টাফ সদস্যদের মাসে ৬ হাজার ডলার বেতন দিচ্ছেন ব্লুমবার্গ। অন্যদিকে বার্নি স্যান্ডার্স, এলিজাবেথ ওয়ারেন ও মেয়র পিটি বাটিগিয়েগ এধরনের কর্মীদের বেতন দিয়েছেন সাড়ে ৩ হাজার ডলার। অর্থাৎ এদের চেয়ে ব্লুমবার্গ তার নির্বাচনী প্রচারণা কর্মীদের ৭০ শতাংশ বেতন বেশি দিচ্ছেন। ফলে ব্লুমবার্গের বিরুদ্ধে এও অভিযোগ উঠেছে তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন টাকা দিয়ে কিনে নিতে চাচ্ছেন।

সর্বাধিক পঠিত