প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতের হায়দ্রাবাদে এনকাউন্টারে মৃতদের শেষকৃত্যে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ

রাশিদ রিয়াজ : একইসঙ্গে মৃতদেহগুলির ময়নাতদন্তের ভিডিয়োগ্রাফির নির্দেশ দিয়েছে ভারতের হাইকোর্ট। শনিবার সন্ধ্যার মধ্যে সেটি কোর্টে জমা দিতে বলা হয়েছে। হায়দ্রাবাদ গণধর্ষণ ও খুন মামলায় ধৃত ৪ জনের পুলিশের সঙ্গে এনকাউন্টারে মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু সোমবার রাত ৮টা পর্যন্ত মৃতদেহগুলির শেষকৃত্য করা যাবে না বলে জানিয়ে দিল তেলাঙ্গানা হাইকোর্ট। এই এনকাউন্টারের আইনি বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছে। সেই মামলাতেই শুক্রবার রাতে এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

পুলিশের বক্তব্য, শুক্রবার ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ সামশাবাদের কাছে ৪৪ নম্বর জাতীয় সড়কে ঘটনার পুনর্নির্মাণ করতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ওই চার অভিযুক্তকে। সেই সময় আগ্নেয়াস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে তারা। অভিযুক্তদের পালানো আটকাতে গিয়ে পুলিশ ওই চারজনকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। তাতেই মৃত্যু হয় তরুণী চিকিৎসককে ধর্ষণ ও খুনে অভিযুক্ত চারজনের।

যদিও ওই এনকাউন্টের ঘটনায় প্রশ্ন তুলে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন ১৫ জন মহিলা এবং মানবাধিকার কর্মী। গোটা ঘটনায় সুপ্রিম কোর্টের গাইডলাইন মেনে চলা হয়নি বলে আবেদনে উল্লেখ করেছিলেন তারা। সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মৃতদেহের শেষকৃত্য করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে আদালত।

এর আগে এনকাউন্টারে মৃত ৪ অভিযুক্তের পরিবার তাদের মৃতদেহ নিতে অস্বীকার করে। যার ফলে স্থির হয়, হায়দ্রাবাদকাণ্ডে চার অভিযুক্তের শেষকৃত্য করবে পুলিশই। জানা গিয়েছে, পুলিশের তরফে এনকাউন্টার স্থল থেকে চারটি মৃতদেহ সরিয়ে এনে মৃতদের বাড়িতে খবর দেওয়া হলেও কোনও পরিবারের তরফেই দেহ নিতে আগ্রহ প্রকাশ করা হয়নি। বরং দেহ যে তারা নেবেন না, তা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই সময়

সর্বাধিক পঠিত