প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০৩০ সালের মধ্যে ২৫ কোটি মানুষের মাঝে সাহায্য পৌঁছে দেয়ার লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করেছে ব্রাক

সাইফুর রহমান: বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ উন্নয়ন সংস্থা ব্রাক ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপি টেকসই উন্নয়নের জন্য লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করেছে। এর আওতায় সংস্থাটি আগামি ১০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের সুবিধাবঞ্চিত নারী, যুবক এবং দরিদ্রতম অঞ্চলে বসবাবাস করা মানুষের দোরগোড়ায় সেবা নিয়ে পৌঁছার পরিকল্পনা করছে।

ব্রাকের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারম্যান স্যার ফজলে হাসান আবেদ জানান, টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা নির্ধারণের মধ্য দিয়ে আমরা ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র দূরীকরণের লক্ষে মানুষের নিকট প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এসডিজি অর্জনে আমরা সুনির্দিষ্ট লক্ষও স্থির করেছি। তিনি আরো বলেন, ব্রাক সবসময় লক্ষ নির্ধারণ করে এগিয়ে যাওয়ার পক্ষপাতী, ছোট পরিসরে কাজ করেও সুদুরপ্রসারী প্রভাবের জন্য লক্ষ স্থির করে কাজ করা প্রয়োজন। বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে ৪৭ বছর এবং আফ্রিকা, এশিয়ায় মানুষের সঙ্গে ১৭ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা বিনিময় করে বিশ্বব্যাপি মানুষ এবং বেসরকারি অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত ব্রাক। বিশ্বে বৃহৎ পরিসরে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ব্রাক ইতোমধ্যেই প্রাথমিকভাবে ৩ সদস্যের গ্লোবাল বোর্ড গঠন করেছে। এই বোর্ড ব্রাকের পরিকল্পনা অনুযায়ী এগিয়ে যাওয়ার জন্য স্ট্রাটেজি নির্ধারণ করবে। তিন সদস্যের এই বোর্ডে তাৎক্ষনিক কোনো পরিবর্তন আসবে না। এর সদস্যরাই ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা নির্ধারণ করে সে অনুযায়ী কাজ করবে।

ব্রাক গ্লোবাল বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন আমীরা হক, যিনি বর্তমানে ব্রাক ইন্টারন্যাশনালের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ২০১২-২০১৪ সালে জাতিসংঘের ফিল্ড সাপোর্ট বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া ব্রাক বাংলাদেশের বর্তমান চেয়ারপার্সন, প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, অর্থনীতিবিদ এবং নীতি নির্ধারক ড. জিল্লুর রহমান গ্লোবাল বোর্ডের ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করবেন। তিনি ২০০৮ সালে তত্ত¡াবধায়ক সরকারের শিক্ষা এবং বাণিজ্য উপদেষ্টা ছিলেন। এছাড়াও তিনি থিংক ট্যাংক পাওয়ার এবং পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা এবং বর্তমানে এর নির্বাহী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বোর্ডের তৃতীয় সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের সময়কালে ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করা লর্ড মার্ক মাল্লোচ ব্রাউন। এর আগে তিনি ইউএনডিপির প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এর পরে গর্ডন ব্রাউনের মন্ত্রিসভায় দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

ব্রাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ, ড. মুহাম্মদ মুসা এবং ব্রাক ইন্টারন্যাশনাল সদ্য প্রতিষ্ঠিত ব্রাক গ্লোবাল বোর্ডকে স্বাগত জানিয়ে কে বিশ্বব্যাপি ব্রাকের প্রভাব ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করেন। উল্লেখ্য, ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়ে বাংলাদেশ ছাড়াও এশিয়া আফ্রিকাসহ বিশ্বের ৪০ টিরও বেশি দেশের ১০ কোটি মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে সংস্থাটি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত