প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১২-১৪ অক্টোবর কাশ্মীরে আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ সম্মেলন

নূর মাজিদ : অক্টোবরে জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যে বিনিয়োগ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। আজ মঙ্গলবার দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের এক শীর্ষ কর্মকর্তা একথা জানান। এই সম্মেলনে দেশি-বিদেশি সকল ধরণের বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

ভারতের সংবিধানের ৩৭০ ধারা অনুসারে বিশেষ রাজ্য মর্যাদা এবং ৩৫এ- ধারায় সেখানে বহিরাগতদের জমি কেনার নিষেধাজ্ঞা বাতিলের পর ভারত সরকার এই বিনিয়োগ সম্মেলনের আয়োজন করছে। খবর : এনডিটিভি।

দেশটির শিল্প এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মুখ্যসচিব এনকে চৌধুরি বলেন, ‘অনেক কম সময়ের মধ্যে এই আয়োজন করা হচ্ছে, কিন্তু আমরা একে সফল করবই।’

তিনি আরো বলেন, ‘সেখানে সম্ভাবনাময় খাত যেমন পর্যটন, স্বাস্থ্য, কৃষি এবং শিক্ষাখাতে আমরা বিনিয়োগকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত। এই সম্মেলনের মাধ্যমে অনেক নতুন ব্যবসায় সঠিক বিনিয়োগের মাধ্যমে বড় হয়ে ওঠার সুযোগ পাবে।’

এনকে চৌধুরি জোর দাবী করেন, ৩৭০ নং অনুচ্ছেদ বাতিলের সঙ্গে এই সম্মেলন আয়োজনের কোন সংযোগ নেই। এসময় তাকে সাংবাদিকেরা জিজ্ঞাসা করেন, পুরো কাশ্মীরে যখন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন এবং কারফিউ চলছে তার মাঝেই এই সমেলন কেন সরকার আয়োজন করছে। যার জবাবে তিনি বলেন, একমাসে পরিস্থিতির অনেক উন্নতি হবে।

তিনি বলেন, ‘আমি যদি এই কথায় নিজেই আস্থা না রাখতাম তবে আজ সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করতাম না।’

আগামী ১২-১৪ অক্টোবর রাজ্যের রাজধানী শ্রীনগরে এই সম্মেলন আয়োজন করা হবে। ওই সম্মেলনে ভারতের স্থানীয় সহ আটটি দেশের বিনিয়োগকারীরা অংশগ্রহণ করবেন বলে কেন্দ্রীয় সরকার আশা প্রকাশ করেছেন।

জম্মু-কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদের দায় বরাবরই রাজ্যটির বিশেষ মর্যাদার ওপর চাপিয়েছে হিন্দু জাতীয়তাবাদীরা। যার অংশ হিসেবে বিজেপি সরকার রাজ্যটির বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে, একে দুই ভাগ করে। এই উদ্যোগের মাধ্যমে সেখানে বাণিজ্যিক কার্যক্রম গতিশীল করার কথা বলা হচ্ছে।

তবে সমালোচক, রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক এবং অধিকার কর্মীদের মতে এর মাধ্যমে স্থানীয়দের জমি কেড়ে নেয়াসহ সেখানে ভারতের অন্য রাজ্যের অধিবাসীদের স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ করে দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে ভারতের। সম্পাদনা : নাইমুল ইসলাম।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত