প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বকাপ ক্রিকেট : মাঠ থেকে যেভাবে পৌঁছাবে টেলিভিশনে

আক্তারুজ্জামান : ১২তম বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আসর মাঠে গড়াতে বাকি আছে আর মাত্র ৩দিন। আগামী দেড় মাস ধরে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের ১১টি মাঠে ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯। তবে বিশ্বের প্রায় ১০০ কোটি মানুষ বিশ্বকাপ দেখবে টিভিতে, এবং তাদের মাঠে বসে ক্রিকেট দেখতে না পারার দুঃখ ঘোচাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল বা আইসিসি ‘স্টেট-অব-দি-আর্ট’ টিভি কভারেজের প্রতিশ্রæতি দিয়েছে। এখন কথা হলো কিভাবে এই ম্যাচগুলো মাঠ থেকে সরাসরি দর্শকের ঘরে পৌঁছায়? এটা নিয়ে একটা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম বিবিসি বাংলা।

আগামী ৩০ মে থেকে ৪৬ দিন ধরে চলা বিশ্বকাপে ম্যাচ হবে মোট ৪৮টি। আইসিসি টিভি সবগুলো ম্যাচই লাইভ প্রচার করবে। আইসিসি বলছে প্রযুক্তি এবং ক্যামেরা ব্যবহারের দিক থেকে এবারের বিশ্বকাপের কভারেজ হবে অভ‚তপূর্ব, ‘স্টেট-অব-দি-আর্ট।

প্রতিটি ম্যাচে মাঠে কমপক্ষে ৩২টি ক্যামেরা ব্যবহার করা হবে যেগুলোর আটটি থাকবে ‘আলট্রা-মোশন’ ও ‘হক-আই’ ক্যামেরা। স্ট্যাম্পের সামনে এবং পেছনে দুদিকেই ক্যামেরা থাকবে। সেই সাথে মাঠের ওপর টাঙানো দড়িতে থাকবে চলমান ‘স্পাইডার ক্যামেরা’। আর আকাশে থাকবে ড্রোন চালিত ক্যামেরা যা দিয়ে ওপর থেকে পুরো স্টেডিয়াম এবং আশপাশের ছবি দেখবেন দর্শকরা।

আইসিসি বলছে, এই প্রথমবারের মতো ম্যাচের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলোর রিপ্লে এবং সেই সাথে বিশ্লেষণ এমনভাবে এবার টিভি দর্শকরা দেখবেন যে অভিজ্ঞতা আগে তাদের কখনো হয়নি। এই ‘৩৬০ ডিগ্রি’ রিপ্লেতে কয়েকটি ক্যামেরার ফুটেজ যোগ করা হবে।

ইতিমধ্যে ধারাভাষ্যকারদের চ‚ড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করেছে আইসিসি।

নাসের হুসেইন, ইয়ান বিশপ, কুমার সাঙ্গাকারা, মাইক অ্যাথারটান, সৌরভ গাঙ্গুলি, সঞ্জয় মাঞ্জরেকার, ওয়াসিম আকরাম, রমিজ রাজা এবং মার্ক নিকোলাসের মতো তারকা ধারাভাষ্যকারদের পাশাপাশি থাকবেন : মেলানি জোন্স, আ্যালিসন মিচেল, ব্রেন্ডন ম্যাকালাম, গ্রায়েম স্মিথ, শন পোলক, মাইকেল ¯েøটার, মার্ক নিকোলাস, মাইকেল হোল্ডিং, ইশা গুহ, পমি বাঙ্গাওয়া, হর্শ ভোগলে, সাইমন ডুল, ইয়ান স্মিথ, আতহার আলি খান, ইয়ান ওয়ার্ড এবং গতবারের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক।

ধারাভাষ্যকারদের দৃষ্টিতে কেমন হবে এবারের বিশ্বকাপ?

ক্রিকেট পন্ডিতরা উচ্ছ¡সিত। তারা বলছেন, এবারের বিশ্বকাপ হতে পারে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে চমকপ্রদ, উপভোগ্য, প্রতিদ্ব›িদ্বতাপূর্ণ টুর্নামেন্ট।

নাসের হুসেইন: ‘সবচেয়ে উপভোগ্য বিশ্বকাপ হতে পারে এবার…এই ইতিহাসের একজন সাক্ষী হওয়ার জন্য আমি উন্মুখ।’

ব্রেন্ডন ম্যাকালাম: ‘বিশ্বকাপের সাথে এবার যুক্ত হচ্ছি ভিন্ন এক ভ‚মিকায়। নাটকীয়তায় ভরা একটি বিশ্বকাপের অপেক্ষা করছি।’

কুমার সাঙ্গাকারা: ‘এবারের বিশ্বকাপ হবে সম্ভবত এযাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে প্রতিদ্ব›িদ্বতাপূর্ণ টুর্নামেন্ট। ইংল্যান্ড ফেভারিট, কিন্তু যোগ্য একাধিক চ্যালেঞ্জার রয়েছে’

মেলানি জোন্স : ‘১০টি দলেরই যে শক্তি, তাতে নজিরবিহীন প্রতিদ্ব›িদ্বতা হওয়ার সম্ভাবনা এবার প্রবল। আগাগোড়া বহু অঘটন ঘটতে পারে, আগে পায়নি এমন কোনো দল এবার প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ জিততে পারে।’

ওয়াসিম আকরাম : ‘১৯৯২ বিশ্বকাপের ফরম্যাটে হবে এবারের বিশ্বকাপ। কোয়ালিফাই করার জন্য প্রতিটি দল অনেক সুযোগ পাবে… শক্ত প্রতিযোগিতা হবে এবং অভ‚তপূর্ব ক্রিকেট দক্ষতা দেখার আশা করছি।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত