প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আদর্শিক এবং নীতিগত ভিত্তি না থাকার কারণেই বিএনপি জোট ধ্বংসের শেষপ্রান্তে, বললেন অপু উকিল

লিয়ন মীর : আদর্শিক এবং নীতিগত ভিত্তি না থাকার কারণেই বিএনপি জোট ভেঙে ধ্বংসের শেষ প্রান্তে পৌঁছে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক অপু উকিল। তিনি বলেন, বিএনপি গণভিত্তিক আদর্শিক রাজনীতি করে না। যার ফলে বিএনপি আজ পুরোপুরি জনবিচ্ছিন্ন দেউলিয়া নামেমাত্র একটি রাজনৈতিক দল। যে দলের চেয়ারপারসন দুর্নীতির দায়ে কারাগারে থাকে, যে দল জনবিচ্ছিন্ন, রাজনীতিতে সেদলের কোনো অস্তিত্ব থাকে না।সেকারণেই বিএনপি জোট এবং ঐক্যফ্রন্ট দিশেহারা হয়ে পথ খুঁজে না পেয়ে ভেঙে যাচ্ছে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি বলেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট রাজনৈতিকভাবে আদর্শগত ও নীতিগত কোনো জোট নয়। শুধুই আওয়ামী লীগের বিরোধিতা এবং ক্ষমতার স্বাদ গ্রহণ করার জন্যই এই দুটি জোট গঠন করা হয়েছিলো। এভাবে আদর্শহীন এবং অন্যের বিরোধিতার উপর ভিত্তি করে যে জোট গঠিত হয় তা কখনো টিকে থাকে না। যার ফলে বিএনপি জোট এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আজ বাস্তবতা এবং সত্যের চাপে ভেঙে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, মিথ্যা বা রাজনৈতিক কৌশল দিয়ে সত্য এবং বাস্তবতাকে প্রতিরোধ করা যায় না। বিএনপি আজ কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয়েছে। প্রতিষ্ঠার পরে বিএনপিকে এর আগে কখনো এভাবে জনগণের মুখোমুখি হতে হয়নি। দখলকৃত ক্ষমতার স্বাদ গ্রহণ করেই বিএনপি প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে এবং যেকোনো মূল্যে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরেই বিএনপি পথ চলেছে। কিন্তু জনগণের জন্য আন্দোলন করে বা জনগণের প্রয়োজনের রাজনীতি করে বিএনপিকে কখনো ক্ষমতায় যেতে হয়নি। বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করার পরই বিএনপি রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। প্রতিপক্ষহীন রাজনৈতিক অঙ্গনে বিএনপি স্বাধীনতাবিরোধী দলের সঙ্গে ক্ষমতার ভাগবাটোয়ারা করে দেশ শাসন করেছে। এর আগে কখনো রাজনৈতিক প্রতিযোগিতার মধ্যেও পড়তে হয়নি দলটিকে। বর্তমান পরিস্থিতিতে বিএনপিকে মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে রাজনৈতিকভাবে প্রতিযোগিতা করতে হচ্ছে।কিন্তু এই প্রতিযোগিতায় বিএনপি একেবারেই ভেঙে পড়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট একটি নির্বাচনী জোট ছিলো। এই জোটের রাজনৈতিক নীতি এবং আদর্শ ছিলো না এবং ছিলো না সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য। এতোটাই আদর্শহীন ছিলো যে, মুক্তিযুদ্ধের কা-ারি নেতারাও জামায়াতের সঙ্গে হাত মেলাতে কোনো ভেদাভেদ করেনি। শুধু ক্ষমতায় যাওয়াই ছিলো এই জোটের মূল লক্ষ্য। যেহেতু ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে হেরে গেছে, ক্ষমতায় যেতে পারেনি সেহেতু ক্ষমতাকেন্দ্রিক এই জোট আর টিকবে না এটাই স্বাভাবিক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত