প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

ছাত্রলীগ নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি গোলাম রাব্বানীর

মুহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন : ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা ছাত্রলীগ নিয়ে বিতর্ক ছড়াবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু’র) সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

১৯ মে ২০১৯ রোববার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় শনিবার রাত ২টার দিকে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদবঞ্চিত ছাত্রলীগের নারী নেত্রীদের ওপর হামলা করার অভিযোগ নাকচ করে দেন গোলাম রাব্বানী। ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পর সংগঠনের বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে যে বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে তার লিখিত দালিলিক প্রমাণ আহ্বান করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘সবার কাছে একটা জিনিস স্পষ্ট করে বলছি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে যে মিথ্যাচার করা হচ্ছে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। এই অপরাজনীতি বন্ধ হোক এটা আমরা চাই। আমরা স্পষ্টভাবে বলছি এরপর আমরা আইনি ব্যবস্থা নেবো। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়া হচ্ছে এরই মধ্যে কয়েকজন মানহানির মামলা করেছে।’

ছাত্রলীগে কোন কাদা ছোঁড়াছুড়ি চান না উল্লেখ করে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা একেবারে পরিবারের মত থাকতে চাই। ভুল ভ্রান্তির জায়গা থাকলে আমরা বসবো, কথা বলবো। আমরা সকল ভুল-ভ্রান্তির অবসান চাই।’

সংগঠনের পদপ্রাপ্ত বিতর্কিতদের প্রসঙ্গে গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘যে প্রমাণ দেবে আমরা অবশ্যই ব্যবস্থা নেবো। একজনও আমাদের কাছে কোন প্রমাণ দেয়নি। আমাদের সংগঠনের যে ফোরাম রয়েছে, সেখানে প্রথমে তারা কথা বলবে। সেখানে যদি ন্যায় বিচার না পায়, তাহলে পরে তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলবে। কিন্তু আমাদের কাছে কোন লিখিত অভিযোগ আসেনি, কিসের ভিত্তিতে আমরা ব্যবস্থা নেবো?’

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘দুটি বিষয় স্পষ্ট করছি। যদি আমাদের কাছে কোন তথ্য-উপাত্তসহ লিখিত অভিযোগ করে আমরা তাদের দালিলিক প্রমাণ দেখে ক্রস চেক করে ওই শূন্যস্থান পূরণের জন্য তাদের এখানে যোগ্যতানুসারে প্রভাইড করব। এরপরও যদি যোগ্য কেউ পদবঞ্চিত থেকে থাকে তাদের বিষয়ে নেত্রীর সঙ্গে কথা বলব। এজন্য যে অভিযোগ করবে তাকে অবশ্যই ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে লিখিত প্রমাণ দিতে হবে। এটাই নিয়ম।’ এ দিকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদবঞ্চিতরা রোববার ভোর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান গ্রহণ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাস না পাওয়া পর্যন্ত তারা ওই অবস্থান থেকে নড়বেন না বলে জানিয়েছেন।

পদবঞ্চিতরা বলছেন, ‘দৃঢ় বিশ্বাস আমাদের প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনা দাবি মেনে নেবেন। দাবি না মানা পর্যন্ত তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত