প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আর লাইনে দাঁড়িয়ে নয়, ঘরে বসেই রেলের টিকিট ‘রেলসেবা’ অ্যাপে

শাহানুজ্জামান টিটু : রেলের টিকিট আরো সহজলভ্য করতে এবং টিকিট কালোবাজারী বন্ধ করতে ইন্টারনেট ভিত্তিক অনলাইন টিকেটের পাশাপাশি স্মার্টফোন অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি ও রেলের যাবতীয় তথ্য ও সেবা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে চালু করেছে রেল সেবা নামে একটি অত্যাধুনিক অ্যাপ।

রেলওয়ে সুত্রে জানায়, ঘন্টায় প্রায় ১৫ হাজার টিকিট ইস্যু করতে সক্ষম এই অ্যাপটি সর্ম্পূণ বাংলাদেশে তৈরী। স্টেশন কাউন্টার, ইন্টারনেট ও মোবাইল ভিত্তিক ই-সেবা পোর্টালের মাধ্যমে টিকিট বিক্রির কারিগরি দায়িত্বে নিয়োজিত একই প্রতিষ্ঠান কম্পিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেমস লিমিটেড। রেলমন্ত্রীর উদ্যোগ ও উৎসাহে বাংলাদেশ রেলওয়ের সেবা ব্যবহারকারীর দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে অ্যাপটিতে পছন্দসই আসন বিন্যাস অনুযায়ী তাৎক্ষণিক টিকেট কাটার পাশাপাশি সংযোজন করা হয়েছে নানাবিধ সুবিধা, যার মধ্যে আছে ট্রেন যাত্রার অভিজ্ঞতার রেটিং, ট্রেনের অবস্থান, ট্রেন সিডিউল, আসন প্রাপ্যতা, ট্রেনে খাবার অর্ডার দেয়ার জন্য মেনু, যাত্রী অভিযোগ জানাতে রয়েছে কমপ্লেইন সেকশন। জাতীয় কল সেন্টার (৩৩৩) ইন্ট্রিগেটেড থাকার কারণে যাত্রীরা তাদের অভিযোগ ও মতামত সহজে জানাতে পারবেন। এই প্রতিষ্ঠান ২০১০ সালে মোবাইলের মাধ্যমে রেলওয়ে টিকেটিং সেবা চালু করেন এবং সে সময়ে এশিয়া মহাদেশের মধ্যে সর্বপ্রথম বাংলাদেশেই উক্ত সেবা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তা উদ্বোধন করেন যা এখনও সফলভাবে পরিচালিত হচ্ছে।

সিএনএস লিমিটেডের এক কর্মকর্তা জানান, প্রথম দিকে ছোটখাট কিছু সমস্যা দেখা দিলেও সেগুলো দ্রæত নিরসন করার ফলে অ্যাপটি ইতিমধ্যে জনপ্রিয় হয়েছে। এ পর্যন্ত ১ লাখের বেশী ডাউনলোড হয়েছে। ২৮এপ্রিল চালুর পর হতে ১৭মে পর্যন্ত ২০ দিনে অনলাইন পেমেন্টের মাধ্যমে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৬৩১টি যাত্রীর টিকিট বিক্রী হয়েছে, যার মধ্যে ২২হাজার ০৩২ টি টিকিটই অ্যাপের মাধ্যমে কাটা হয়েছে।

বাংলাদেশ ভ্রমণ করছেন এমন ২জন ভারতীয় আইটি বিশেষজ্ঞ অ্যাপটির ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন ইন্ডিয়ান রেলওয়ে অ্যাপেও সরাসরি টিকেট ক্রয় করা যায় না শুধুমাত্র বুকিং করা যায় এবং যাত্রী নিজের পছন্দমত কোন সিট নির্বাচনও করতে পারেন না। তারা বাংলাদেশ রেলওয়ের রেল সেবা অ্যাপের কারিগরী দিক সহজ, উন্নত ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন বলে উল্লেখ করেন।

অ্যাপটির প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান কম্পিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেমস লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক(মার্কেটিং) লে. কর্ণেল(অব.) তারেক জানান, অ্যাপটি সম্পূর্ণ বাংলাদেশী প্রোগ্রামার দ্বারা তৈরী একটি আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন অ্যাপ। অ্যাপে ছোটখাট কিছু ত্রূটি বিচ্যুতি যদি থেকে থাকে, তা নিয়ে জনসাধারণের মধ্যে বিভ্রান্তি না ছড়িয়ে সরাসরি সিএনএস এর নিকট গঠনমূলক সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব ফেসবুক পেইজে ((facebook.com/groups/railsheba/), twitter-G @Rail_Sheba Ges WhatsApp গ্রুপে দেয়ার অনুরোধ করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ