প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত কর কমিশনার বজলুল কবিরের উদ্দীপনা জাগানিয়া উদ্যোগ, ‘রিপেয়ার বাংলাদেশ’

আন্ নাসের নাবিল : স্তুপ হয়ে পড়ে থাকা আবর্জনা দেখে খুব সচরাচরই নাক চেপে পাশ কাটিয়ে পথ চলতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি আমরা। আবার অনেকে চলার পথে এটা ওটা ফেলে দিই রাস্তায়। আবার নিজেরাই মন্তব্য করি, ‘দেশটা একটা আস্ত ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হচ্ছে’। অথচ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ব্যক্তিগত পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টি করার কোনো চেষ্টা দেখা যায় না। সব দায় সরকার কিংবা কর্তৃপক্ষকে দিয়ে হাত গুটিয়ে যারা বসে থাকা মানুষদের মধ্যে ব্যতিক্রম একজন মো. বজলুল কবির। তরুণদের সাথে নিয়ে ময়লা-আবর্জনার মতো সব জঞ্জালকে সরিয়ে পুরো দেশটার চেহারা বদলে দিতে চান তিনি। নিজের দেশটাকে সুন্দর করে গড়ার জন্য, সমাজের মানুষদের সচেতন করার তাগিদেই ‘রিপেয়ার বাংলাদেশ’ নামে একটি সংগঠন গড়েছেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত কর কমিশনার মো. বজলুল কবির।
১ ফেব্রুয়ারি মৌচাক-শান্তিনগর-মালিবাগ ফ্লাইওভার পরিষ্কার করে ‘রিপেয়ার বাংলাদেশ’ সংগঠনটি। প্রতিষ্ঠাতা বজলুল কবির তার ফেসবুক প্রোফাইলে পোস্ট দিয়ে জানান, ১০ জন শ্রমিক আর ৩ জন ড্রাইভার নিয়ে অভিযানে নেমে পড়েছেন তিনি। একদিনেই তারা প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করেন। একদিনের এই কর্মকা-েই কয়েকটন আবর্জনা সরানো হয় ফ্লাইওভার থেকে। বর্জ্য নির্দিষ্ট জায়গায় নিয়ে ফেলার জন্য ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী অফিসার মেসবাহুল ইসলাম একটি ট্রাকও দিয়েছেন।
শত কোটি টাকার এই গুরুত্বপূর্ণ ফ্লাইওভারটির নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে বছরখানেক। অথচ এতোদিনে এই স্থাপনার পরিচ্ছন্নতা নিয়ে মাথাব্যথা ছিলো না কারও। এটি নিয়েও আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন বজলুল কবির। ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি আরও লিখেছেন, ‘৩ বছর আগে ২২ জানুয়ারি ঢাকার কুড়িল ফ্লাইওভার পরিষ্কার করা দিয়ে যাত্রা শুরু করে ‘রিপেয়ার বাংলাদেশ’। তারপর থেকে ঢাকার ফ্লাইওভার গুলো আমরাই পরিষ্কার করি। আশা করি মাননীয় মেয়র মহোদয়গণ আমাদের এ কাজ করা থেকে অচিরেই অব্যাহতি দেবেন।’
এছাড়া ‘রিপেয়ার বাংলাদেশ’ বিভিন্ন কার্যক্রমও সম্পন্ন করেছে বিগত দিনগুলোয়, প্রাপ্তির খাতায় মিলেছে সফলতাও। পাঁচ দিনে রাজধানীর কুড়িল ফ্লাইওভার পরিষ্কারের কঠিনতম চ্যালেঞ্জ নিয়ে শুরু হওয়া সংগঠনটি একে একে সম্পন্ন করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সিডিএ আবাসিক এলাকা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, সিজিও ভবন পরিচ্ছন্নকরণ অভিযান। এছাড়া ‘রিপেয়ার বাংলাদেশ’-এর উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টয়লেট নির্মাণ, শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার উপকরণ, বন্যার্তদের ত্রাণসহ বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে এই কয়েক বছরে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত