প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলা ভাষা কি বিলুপ্ত হয়ে যাবে?

অসীম সাহা : আজ ১ ফেব্রুয়ারি। আমাদের ভাষার মাস। এই মাসে অনেক সংগ্রাম ও আন্দোলনের মাধ্যমে অবশেষে সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার প্রমুখের জীবনদানের মাধ্যমে বাংলা ভাষাকে অন্যতম রাষ্ট্রীয় ভাষা হিশেবে স্বীকৃতি আদায় করে নিতে সক্ষম হয়েছিলেন বাংলার জনগণ। সেই শুরু। বাঙালি আর পেছন দিকে ফিরে তাকায়নি। ধাপের ধাপে নিজেদের অধিকার আদায়ের কণ্টকাকীর্ণ পথ পেরিয়ে ১৯৬৬-এর ছয় দফা, ১৯১৯-এর গণঅভ্যুত্থান এবং ৭০-এর নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের নেতৃত্বে অসহযোগ আন্দোলন; অবশেষে ৭১-এর ৭ই মার্চ রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু কর্তৃক ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতা সংগ্রাম’ ঘোষণায় উদাত্ত আহ্বানে সাড়ে সাত কোটি মানুষের সহযোগিতা এবং ৩০ লাখ শহিদ ও দুলাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর সর্বক্ষেত্রে বাংলার ভাষা প্রতিষ্ঠিত হবে, এটা ছিলো জাতির প্রত্যাশা। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি, জাতির সে-আশা তো পূরণ হয়ইনি, উল্টো বাংলার ওপরে চলছে বলাৎকারের মহোৎসব। যে-যেভাবে খুশি, বাংলা ভাষাকে ব্যবহার করছেন। কথ্যরূপে আঞ্চলিক ভাষার রাজত্ব চলতে পারে, কিন্তু লিখিতরূপে তার ব্যবহার মানে জবরদস্তি। এটা কিছুতেই চলতে পারে না।

মনে রাখতে হবে, সারা পৃথিবীতে বহুল ব্যবহৃত ভাষার মধ্যে বাংলা রয়েছে চতুর্থ স্থানে। অথচ সেই ভাষাকে অবনমনের স্থানে নামিয়ে আনতে কিছু অশিক্ষিত এবং তথাকথিত অভিজাত বাংলাকে বাংলিশ ও হিংলিশে পরিণত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এটা সরাসরি শহিদের রক্তের সঙ্গে বেঈমানি।

পৃথিবীতে যেখানে প্রতি সেকেন্ডে একটি করে ভাষা বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে, সেখানে কারা সেই ষড়যন্ত্রকারী, যারা বাংলা ভাষাকে সেই বিলুপ্তির পথে ঠেলে দিতে চায়? বুদ্ধির ঢিবি তথাকথিত বুদ্ধিজীবীরা চুপ। ড. শহিদুল্লাহর মতো পণ্ডিতের জন্ম হচ্ছে না। ভাষাবিদ বলতে যাদের বোঝায়, তারা অর্ধশিক্ষিত টিউটোরিয়ালের শিক্ষক। বাংলা একাডেমির যে দায়িত্ব ছিলো, তারা তা করতে ব্যর্থ হয়েছেন। ফলে বাংলা ভাষা এক ধরনের বিপর্যয়ের মুখোমুখি এসে দাঁড়িয়েছে। এ-অবস্থায় বাংলা ভাষাকে বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা করতে পারে একমাত্র সুশিক্ষিত সংস্কৃতিবান মেধাবী তরুণরা। তাদের ওপর ভরসা রেখেই আমাদের পথ চলতে হবে। ভাষার মাসে এই হোক আমাদের শপথ।

লেখক : কবি ও সংযুক্ত সম্পাদক, দৈনিক আমাদের নতুন সময়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত