প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সরব উপস্থিতির মধ্য দিয়ে সমথর্কদের চাঙ্গা করতে চাইছে কংগ্রেস মনে করেন ড. দেলোয়ার হোসেন

সৌরভ নূর : অনেকদিন ধরেই একটা গুঞ্জন এমনিতেই ছিলো প্রিয়াঙ্কা গান্ধী রাজনীতিতে আসছেন এবং কংগ্রেসের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বভার নিতে পারেন। এছাড়া গত নির্বাচনে কংগ্রেসের যে ভরাডুবি হয়েছিলো তার রেশ কাটিয়ে উঠতে এবং নরেন্দ্র মোদিকে পরাজিত করতে হলে একটা নতুন শক্তির দরকার কংগ্রেস দলের। তাই নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সরব উপস্থিতি এটাই নিশ্চিত করে, এটা কংগ্রেসের বড় ধরনের একটা রাজনৈতিক কৌশল। যেটা আগে থেকেই কংগ্রেসের পরিকল্পায় ছিলো এবং তা ধীরে ধীরে বাস্তবায়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষক ড. দেলোয়ার হোসেন। ভারতের রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর আগমন ও কংগ্রেস সমর্থকদের উত্তেজনার কারণ প্রসঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, কংগ্রেস শেষমেষ প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে কনভিন্স করে রাজনীতিতে যুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে এটাও কংগ্রেসের জন্য একটা আনন্দের বিষয়। কেননা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী একজন রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান যার পূর্বপুরুষ স্বাধীনতা আন্দোলনের সময় বড় ভূমিকা রেখেছিলো এবং স্বাধীন ভারতে প্রথম রাজনৈতিক সরকার গঠন করেছিলো। আবার অনেকেই তাকে ইন্দিরা গান্ধীর ছায়া বলে মনে করছেন। সেই জায়গা থেকে কংগ্রেস সমর্থক ও সাধারণ জনগণের প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রতি একটু আলাদা আবেগের বহিঃপ্রকাশ খেয়াল করা যাচ্ছে। অন্যদিকে কংগ্রেস আসন্ন নির্বাচনে একদিকে বিজেপি সরকার অন্যদিকে ছোট ছোট কংগ্রেসবিরোধী দলগুলোকে মোকাবেলা করতে। সমর্থকদের এই জাগরণকে রাজনৈতিক কৌশল হিসাবে ব্যবহার করতে চাইছে। যদিও এটি প্রিয়াঙ্কা গান্ধী নাগরিক ও গণতান্ত্রিক অধিকার।

ভারত হলো বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র। ভারতের রাজনীতিতে ক্ষমতার পালা বদল হলে রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক পরিবর্তন আসবে। অনেকেই ভেবেছিলো মোদি সরকার হয়তো দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকবেন এবং একটা নতুন ধারা চালু করবেন। কিন্তু সেই ভিত এখন দুর্বল হয়ে পড়েছে। ফলে ভারতের অভ্যন্তরীন রাজনীতি নিয়ে অনেক দেশের কৌতূহল ও উদ্বেগের কারণ রয়েছে। এছাড়ও গান্ধী পরিবারের একজন নতুন এবং নারী নেতৃত্ব আসছে। তাই বিশ্বমিডিয়া ভারতের রাজনৈতিক দলগুলোর দিকে তাকিয়ে আছে। এককথায় কংগ্রেস যেনো এককভাবে ক্ষমতায় আসতে পারে, একটা বড় রাজনৈতিক বিজয় আনতে পারে এবং সেই লক্ষ্যে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর ইমেজ ও কারিশমা কাজে লাগাতে চাইছে কংগ্রেস।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত