Skip to main content

প্রচারণায় বিঘ্ন হলেও নির্বিঘ্নে ঐক্যফ্রন্টের বিজয় শোভাযাত্রা

সাব্বির আহমেদ : নির্বাচনী প্রচারণায় এতোদিন দফায় দফায় হামলা ও বাধার মুখে পড়লেও শনিবার বেশ নির্বিঘ্নে বিজয় শোভাযাত্রা করেছে ঐক্যফ্রন্ট।\\ \"\"\ \ শোভাযাত্রাকে কেন্দ্র করে বিপুলসংখ্যক পুলিশের উপস্থিতি দেখা গেছে নয়াপল্টন এলাকায়। শোভাযাত্রার সামনে-পেছনে বিপুলসংখ্যক পুলিশের উপস্থিতি থাকলেও কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি এবং কোনো ধরনের আটক বা গ্রেপ্তারের খবর পাওয়া যায়নি।\ \ \"\"\ \ বিজয় দিবস উপলক্ষে রোববার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ফ্রন্টের পক্ষ থেকে এক বিজয় শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শোভাযাত্রা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বিএনপির মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতীয় স্মৃতিসৌধ থেকে না ফেরার কারণে সেটি দুপুর ১২টার দিকে শুরু হয়।\ \ \"\"\ \ বিজয় শোভাযাত্রাটি বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হওয়া শোভাযাত্রাটি নাইটিঙ্গেল মোড়, কাকরাইল মোড় হয়ে শান্তিনগর মোড় ঘুরে আবার নয়াপল্টনে গিয়ে শেষ হয়।\ \ \"\"\ \ ওই সময় একটি পিকআপভ্যানে ফ্রন্টের নেতারা বিজয় দিবস নিয়ে বক্তব্য রাখেন। নেতাদের বক্তৃতার পাশাপাশি দলের নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেন। এর আগে বড় একটি শোভাযাত্রা নিয়ে নয়াপল্টনের সামনে আসেন ঢাকা-৯ আসনে বিএনপির প্রার্থী ও মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস। শোভাযাত্রায় বিএনপির মহাসচিব ছাড়াও ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, আইনবিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়া, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না প্রমুখ।\ \ শোভাযাত্রায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারি ভোটের নামে এই দেশে মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। সেই থেকে এই দেশে যত নির্বাচন করা হয়েছে, সব নির্বাচন ছিনতাই করেছে। মানুষ কেউ ভোট দিতে যায়নি, প্রার্থীদের ওপর নির্যাতন করেছে, গ্রেপ্তার করেছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘নতুন নির্বাচনেও তারা (আওয়ামী লীগ) মনে করেছে আগের নির্বাচনের মতো ওয়াকওভার দেওয়া হবে। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবার ওয়াকওভার দেব না।