প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘এমপি পুত্রদের বিনা শাস্তিতে মানুষ মেরে ফেলার লাইসেন্স দেয়া হয়'(ভিডিও)

রবিন আকরাম : রাজধানীতে এমপি একরাম চৌধুরীর ছেলে শাবাব গাড়িচাপা দিয়ে সেলিম ব্যাপারী নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার ঘটনায় সমালোচনার ঝড় বইছে সারাদেশে। এ নিয়ে ছোট্ট স্ট্যাটাস দিয়েছে লেখক ও ব্লগার পিনাকী ভট্টাচার্য।

তার ভাষায়, বাংলাদেশের এমপিদের বিনা শুল্কে গাড়ি, বিনা ভোটে জেতা সহ অনেক উৎসাহমূলক প্যাকেজ অফার করা হয়। আর এমপি পুত্রদের বিনা শাস্তিতে মদ্যপ হয়ে গাড়ি চালিয়ে গরীব মানুষকে মেরে ফেলে ঈদ উৎসব পালনের লাইসেন্স দেয়া হয়।

হে পাক পরওয়ারদিগার, রাস্তায় পাগলা কুত্তা যেমন আমরা চিনতে পারি তেমন এমপি পুত্রদের গাড়ি চেনার তৌফিক আমাদের দাও।

প্রসঙ্গত, রাজধানীর মহাখালী ফ্লাইওভারে মঙ্গলবার গাড়িচাপা দিয়ে এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এমপি পুত্রের বিরুদ্ধে। বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটিতে (বিআরটিএ) খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গাড়িটির মালিক কামরুন্নাহার শিউলি। তিনি নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করীম চৌধুরীর স্ত্রী ও নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার চেয়ারম্যান।

তবে ওই দুর্ঘটনার পর গাড়িটি দ্রুত এসে সংসদ ভবনের উল্টো দিকের ন্যাম ফ্ল্যাটে যখন ঢোকে তখন সেটিকে অনুসরণ করেন একজন মোটরসাইকেল আরোহী ও আরেকজন প্রাইভেট কার আরোহী। তারা জানিয়েছেন, গাড়িটি ওই ভবনে ঢোকার পর একজন তরুণ গাড়িটি থেকে নামেন। ভবনটির আনসার ও প্রহরীরা জানিয়েছেন, ওই তরুণের নাম শাবাব চৌধুরী। তিনি কামরুন্নাহার শিউলি ও সংসদ সদস্য একরাম চৌধুরীর একমাত্র ছেলে। গাড়িটি তিনিই চালাচ্ছিলেন।

এদিকে, এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতেই কাফরুল থানায় সড়ক দুর্ঘটনা আইনে একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নম্বর-১৮। মামলার এজাহারেও গাড়ি নম্বর ঢাকা মেট্রো গ ১৩-৭৬৫৫ উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাফরুল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুজন চন্দ্র কর্মকার। এই ঘটনায় এখনো কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি বলে জানা গেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত