প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তরুণরা খেলাধুলার প্রতি মনোযোগী হলে মাদক থেকে মুক্তি পাবে

মো. হাসান সিকদার : পরিবারের পর আমরা যাদের সাথে সবচেয়ে বেশি সময় কাটাই তারা হলো বন্ধু। আর এই বন্ধুত্বের সম্পর্কটাতেও পরস্পরের প্রতি কিছু কর্তব্য আছে। তাই কেউ যদি তার বন্ধুকে মাদক গ্রহণ করতে দেখে, তাহলে প্রকৃত বন্ধু হিসেবে তার প্রথম দায়িত্ব তাকে এর থেকে বিরত রাখার সর্বাত্মক চেষ্টা করা। মাদকদ্রব্য উৎপাদন, চোরাচালান এবং মাদক ব্যবসা রুখতে সূক্ষ্ম পর্যালোচনা করে সেই হিসেবেই দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত।

আবার মাদকাসক্ত ব্যক্তির চিকিৎসা এবং পুনর্বাসনেও পরিবারের শতভাগ আন্তরিকতা প্রয়োজন। দেশের একজন নাগরিক হিসেবে, একজন ছাত্র নেতা ও শিক্ষার্থী কিংবা সচেতন মানুষ হিসেবে নিজের জীবনটাকে নিজের মতো করে সাজানোর যে অধিকার আছে, ঠিক তেমনি সমাজ এবং দেশের মানুষকেও অনেক কিছু দেওয়ার আছে। খেলাধূলার প্রতি তরুণ সমাজের আরো মনোযোগী হতে হবে। তাহলে তারা মাদকের কালো থাবা থেকে রেহাই পাবে। আমরা ছাত্রসমাজ প্রধানমন্ত্রীর মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের সমর্থন করছি।

পরিচিতি : সভাপতি, পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগ / মতামত গ্রহণ : মো. এনামুল হক এনা / সম্পাদনা : মেহেদী হাসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত