প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গাদের জন্য আগামী বাজেটে নতুন বরাদ্দ, পুনর্বাসনের জন্য ২ হাজার কোটি টাকা

উম্মুল ওয়ারা সুইটি : বরাদ্দের নতুন খাত হিসেবে আগামী ২০১৮-১৯ সালের বাজেটে যুক্ত হচ্ছে রোহিঙ্গা পুনর্বাসন। বাংলাদেশে পালিয়ে আসা মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের জন্য সরকার ২ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রাখার পরিকল্পনা নিয়েছে বলে অর্থমন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে , নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের জন্য এই ২ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এই লক্ষ্যে ২ হাজার ৩১২ কোটি টাকার আশ্রায়ণ-৩ প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। নৌবাহিনীকে এ প্রকল্প বাস্তবায়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটির মেয়াদকাল ধরা হয়েছে ২০১৭ সালের জুলাই থেকে ২০১৯ সালের নভেম্বর মাস পর্যন্ত।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, গত বছরের নভেম্বর মাসে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এই প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্প প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ১ লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে পুনর্বাসন করা হবে। ১ লাখ ৩ হাজার ২০০ মানুষের বসবাসের জন্য ১২০টি গুচ্ছগ্রাম নির্মাণ করা হবে। এছাড়া ভাসানচরের অভ্যন্তরে সড়ক, পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা, নলকূপ বসানোসহ যাবতীয় অবকাঠামো তৈরি করা হবে। ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে এ প্রকল্পে ১ হাজার ৮০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখার কথা বলা হয়েছে। চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে এই অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

অর্থ বিভাগের এক কর্মকর্তারা বলেছেন, আগামী অর্থবছরের জিডিপি প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলন, রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্দ, বিশ্বব্যাংকের পক্ষ থেকে বাজেট সহায়তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। উল্লেখ্য, রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনে সরকারি অর্থ বরাদ্দের সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের কাছ থেকে পাওয়া যাবে ৫০০ কোটি টাকা, যা সম্পূর্ণ অনুদান হিসেবে পাওয়া যাবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দিতে বাংলাদেশ কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে সাময়িকভাবে এই বিশাল জনগোষ্ঠীর বাসস্থানের জন্য এ বাজেটে ২ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের কথা ভাবা হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত