প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজস্থানকে হারিয়ে শীর্ষে সাকিবরা

স্পোর্টস ডেস্ক : আগের দুই ম্যাচে ১১৮ ও ১৩২ রান করেও দারুণ বোলিংয়ে জিতেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এবারও বোলাররাই হলেন ত্রাতা, যদিও সাকিব-রশিদরা জ্বলতে পারেননি। কিন্তু ডেথ ওভারে তাদের হিসেবি বোলিংয়ে রাজস্থান রয়্যালস পারল না ১৫২ রানের লক্ষ্য পূরণ করতে। হায়দরাবাদ ১১ রানে জিতে আইপিএলে আবারও শীর্ষস্থান দখল করল।

আগে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৫১ রান করে হায়দরাবাদ। জবাবে ৬ উইকেটে ১৪০ রান করে রাজস্থান। ৮ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে ২০১৬ সালের চ্যাম্পিয়নরা। রাজস্থানের অবস্থান পাঁচ নম্বরে, ৭ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট তাদের।

জয়পুরে টস জিতে ব্যাট করতে নামে হায়দরাবাদ। ১৭ রানেই তারা হারায় প্রথম উইকেট। শিখর ধাওয়ান (৬) বিদায় নেওয়ার পর কেন উইলিয়ামসন ও অ্যালেক্স হেলসের দারুণ জুটি। তাদের যুগলবন্দিতে দ্বিতীয় উইকেটে ৯২ রান আসে হায়দরাবাদের স্কোরবোর্ডে।

৩৯ বলে ৪৫ রানে হেলস আউট হওয়ার পর বাধে বিপত্তি। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় হায়দরাবাদ। ৩২ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে এবারের আইপিএলে নিজের পঞ্চম হাফসেঞ্চুরি করেন উইলিয়ামসন। হেলস সাজঘরে ফেরার পরের ওভারে তিনি ৪৩ বল খেলে আউট হন ৬৩ রানে।

হায়দরাবাদ অধিনায়ক আউট হওয়ার পর ক্রিজে নেমে প্রথম বলে চার মেরে রানের খাতা খোলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু আশা জাগানিয়া শুরুটা রাঙাতে পারেননি। মাত্র ৬ বল খেলে ৬ রানে আউট হন তিনি। জোফরা আরচারের ইয়র্কার ঠেকাতে পারেননি সাকিব, তার ব্যাটে লেগে বল আঘাত করে স্টাম্পে। একই ওভারে ইউসুফ পাঠানকে বিদায় করেন বারবাডোজের এই পেসার।

ইনিংসের শেষ ওভারে রশিদ খানকে ফিরিয়ে তৃতীয় উইকেট নেন আরচার। তার সঙ্গে ২ উইকেট নিয়ে রাজস্থানের সফল বোলার কৃষ্ণাপ্পা গৌতম।

লক্ষ্যে নেমে সহজ জয়ের ইঙ্গিত দিয়েছিল রাজস্থান। হায়দরাবাদের নির্ভরযোগ্য দুই বোলার সাকিব ও রশিদ ছিলেন বেশ খরুচে। ১৪তম ওভারে জশ বাটলারকে ফেরালেও রশিদ ৪ ওভারে দেন ৩১ রান। আগের ম্যাচে টি-টোয়েন্টিতে ৩০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করা সাকিব ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য।

তবে ডেথ ওভারে সিদ্ধার্থ কৌল, সন্দীপ শর্মা ও রশিদের হিসেবি বোলিংয়ে হঠাৎ করে ছন্দ হারায় আজিঙ্কা রাহানে ও সানজু স্যামসনের ব্যাটে দারুণ শুরু করা রাজস্থান। শেষ ওভারে তাদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২১ রানের। আগের ১ ওভারে ১৭ রান দেওয়া বাসিল থাম্পি আস্থার প্রতিদান দেন মাত্র ৯ রান দিয়ে ও এক উইকেট নিয়ে।

রাহানে ৫৩ বলে ৫ চার ও ১ ছয়ে ৬৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। ৩০ বলে ৪০ রান করেন স্যামসন। সন্দীপ ৪ ওভারে ১৫ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন। সিদ্ধার্থ দেন ২৩ রান, নেন ২ উইকেট।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত