প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সুইডেনেও চাকলবিহীন বাসের যাত্রা শুরু

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : বিশ্বব্যাপী প্রযুক্তির প্রসার দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এই প্রযুক্তির প্রসারকে অনেক বিশ্লেষকরা চতুর্থ বিপ্লব বলে মনে করছেন। পৃথিবীতে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে উন্নত দেশগুলোর মধ্যে সুইডেন অন্যতম। পর্যটকদের আকর্ষণ করার জন্য সুইডেনে রয়েছে বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্র। তবে ইউরোপের এ দেশটিতে সাধারণ মানুষদের চলাচলকে আরো সুবিধাজনক ও রোমাঞ্চিত করতে পরীক্ষামূলকভাবে চালকবিহীন যাত্রীবাহী বাস সার্ভিস চালু হয়েছে।

সুইডেনে রাজধানী স্টকহোমের একটি শহরতলী ক্রিস্টায় ৬ মাসের জন্য পরীক্ষামূলক এই বাস সার্ভিসটি চলবে । ১২ সিটের এই বাস শুধু মাত্র সেন্সরের সাহায্যে দেড় কিলোমিটার রুটে চলবে। সর্বোচ্চ গতি হবে ঘণ্টায় ২০ কিলোমিটার।

ইংল্যান্ড, চীন, অষ্ট্রেলিয়ার ও সিঙ্গাপুরে এ ধরনের স্বয়ংক্রিয় গাড়ি চালু আছে।

বাসে লাগানো আছে সেন্সর এবং স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা, যা দিয়ে বাসটি বুঝতে পারে রাস্তার কোথায় থামতে হবে, কোথায় চলতে হবে, আবহাওয়া অনুযায়ী বাসের ভেতরের তাপমাত্রা কীভাবে বদলাতে হবে, কখন দরজা খুলবে, বন্ধ হবে।

বিশ্বে এখন চালকবিহীন গাড়ি তৈরির প্রতি ঝোঁক বাড়ছে, আমাদেরও সেই একই লক্ষ্যে চালকবিহীন এই বাস প্রকল্প। এর ফলে রাস্তায় নিরাপত্তা বাড়বে, সেই সঙ্গে দূষণ কমবে এবং মানুষের দ্বারা যেসব ভুল হয় এ ক্ষেত্রে সেগুলোর সম্ভাবনাও কম হবে।

জাতীয় পরিবেশবাদী সংস্থা এবং যোগাযোগ মন্ত্রণালয় রাস্তায় জঞ্জাল পরিষ্কার করতে চালকবিহীন যান তৈরির পরিকল্পনা করছে৷

সূত্র : বিবিসি বাংলা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত