প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রাম বন্দরের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকা ও মরক্কোর জাহাজ চলাচল করবে

তরিকুল ইসলাম সুমন: চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান ও কেপটাউন এবং মরক্কোর তানজের মেড পোর্টের মধ্যে সরাসরি জাহাজ চলাচল করবে। পাশপাশি দক্ষিণ আফ্রিকা ও মরক্কোর বন্দর কর্তৃপক্ষ চট্টগ্রাম বন্দরকে কারিগরি ও প্রশিক্ষণ দেবে। এ জন্য বাংলাদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং মরক্কো বন্দর কর্তৃপক্ষের মধ্যে দ্রুত সময়ের মধ্যে সমঝোতা স্মারকপত্র স্বাক্ষর করা হবে বলে গতকাল নৌ পরিবহণ মন্ত্রণালয় থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের নেতৃত্বে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির একটি প্রতিনিধিদল দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান ও কেপটাউন এবং মরক্কোর তানজের মেড পোর্ট পরিদর্শন শেষে বুধবার সন্ধ্যায় দেশে ফেরার পর মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকা ও মরক্কোর বন্দরগুলোর সাথে চট্টগ্রাম বন্দরের মধ্যে সরাসরি জাহাজ যোগাযোগ হলে সময় এবং খরচ অনেক কমে যাবে। এতে ব্যবসায়ীরা লাভবান হবেন এবং দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন বেগবান হবে। সফর তালে প্রতিনিধিদল দক্ষিণ আফ্রিকার পরিবহনমন্ত্রী ও মরক্কোর পরিবহন মন্ত্রীর সাথেও স্বাক্ষাত করেন।

প্রতিনিধিদলে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, স্থায়ী কমিটির সদস্য তালুকদার আবদুল খালেক, নুরুল ইসলাম সুজন, হাবিবুর রহমান ও বেগম মমতাজ বেগম এ্যাডভোকেট। কর্মকর্তাদের মধ্যে ছিলেন চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম খালেদ ইকবাল, পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়াম্যান কমডোর জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশে দক্ষিণ আফ্রিকার অনারীর কনসাল মোঃ সোলাইমান আলম শেঠ, নৌপরিবহন মন্ত্রীর একান্ত সচিব এম এম তারিকুল ইসলাম, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবদুস সাত্তার, সংসদ সচিবালয়ের উপসচিব কল্লোল কুমার চক্রবর্তী, নৌপরিবহন মন্ত্রণায়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম খান, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক এবং চীফ মেডিকেল অফিসার ডা: মো. মোশাররফ হেসেন।

প্রতিনিধিদল গত ১৫ জানুয়ারি ২০১৮ সন্ধ্যায় দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত