শিরোনাম

প্রকাশিত : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ১১:২৪ দুপুর
আপডেট : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ০৭:০৩ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

এশিয়া কাপে থাইল্যান্ডকে ৯ ইউকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশের নারীরা

মহসীন কবির: নারী এশিয়া কাপে জয় দিয়ে আসর শুরু করল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। উদ্বোধনী ম্যাচে থাইল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়েছে জাহানারারা।

শনিবার (১ অক্টোবর) টস হেরে বোলিংয়ে নেমে রুমানা-সোহেলীর বোলিং তাণ্ডবে ১৯.৪ ওভারে মাত্র ৮২ রানেই অলআউট হয় থাইল্যান্ডের নারীরা।

জবাবে ১১.৪ ওভারেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদশ। এক রানের জন্য অর্ধশতক করতে পারেননি শামিমা। ৩০ বলে ৪৯ রানে আউট হন তিনি। আর ফারজানা অপরাজিত থাকেন ২৬ রানে। থাইল্যান্ডের হয়ে একমাত্র সাফল্যটি পান পুত্থাওয়াং।  

এর আগে আসরের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন থাইল্যান্ড অধিনায়ক চাইওয়াই। তবে বাংলাদেশের নারীদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে শুরু থেকেই চাপে পড়ে থাইল্যান্ডের নারীরা। ওপেনিং জুটি থেকে আসে ১৩ রান। এরপর নিয়মিত উইকেট হারাতে থাকে তারা। থাইল্যান্ডের হয়ে ২২ বলে সর্বোচ্চ ২৬ রান করেছেন মায়া। এ ছাড়াও ৩৮ বলে ২০ রান করেছেন নাত্থাকান চান্থাম। বাংলাদেশের হয়ে তিনটি উইকেট পেয়েছেন রুমানা আহমেদ। এ ছাড়াও দুটি করে উইকেট পেয়েছেন নাহিদা, সানজিদা এবং সোহেলী। 

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে কোনো ঝামেলায় পড়েননি বাংলাদেশের দুই ওপেনার ফারজানা হক এবং শামীমা সুলতানা। থাইল্যান্ডের বোলারদের বল অনায়াসেই খেলতে থাকেন তারা। তবে দলীয় ৬৯ রানে ওপেনিং জুটি ভাঙেন পুত্থাওয়াং। শামীমাকে বোল্ড করেন তিনি। তবে এরপর আর কোনো বিপদ আসেনি বাংলাদেশ শিবিরে।  

এদিকে ২০১৮ সালের পর আবারও দেশের মাটিতে খেলছে নিগার সুলতানারা। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের সামনে মিশন শিরোপা ধরে রাখা। সাত দেশের টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ড ছাড়াও রয়েছে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মালয়েশিয়া ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। প্রতিটি দল রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে ম্যাচ খেলবে। ফলে গ্রুপ পর্বে প্রতিটি দলের ম্যাচ দাঁড়াবে ৬টি করে। পয়েন্ট তালিকার সেরা চার দল উঠবে সেমিফাইনালে। 

মেয়েদের এশিয়া কাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ হলেও এশিয়া কাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি শিরোপা জিতেছে ভারত। টি-টোয়েন্টি সংস্করণে দুটি আর একদিনের সংস্করণে চারটি মিলিয়ে মোট ৬ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়