শিরোনাম
◈ সালাম মুর্শেদীর বাড়ির মাস্টার প্ল্যান দাখিল করতে রাজউককে নির্দেশ ◈ নাশকতার মামলায় ফখরুল-আব্বাসের স্থায়ী জামিন  ◈ তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প: ২৫ মিলিয়ন ডলার সহায়তার ঘোষণা জাতিসংঘের  ◈ আদর্শ প্রকাশনীর মুচলেকা: স্টল বরাদ্দের নির্দেশ হাইকোর্টের ◈ এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ  ◈ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বেলজিয়ামের রানির সৌজন্য সাক্ষাৎ ◈ কন্টেইনারে করে মালয়েশিয়ায়: দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে কিশোর রাতুলকে ◈ ড্র্রোনে ভূমিকম্পের ধ্বংসলীলার ভয়াল চিত্র, মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ৮ হাজার ◈ ৭ মাত্রার ভূমিকম্পে ঢাকায় ৩ লাখ মানুষের মৃত্যুর শঙ্কা ◈ মার্চের মধ্যে সিসি ক্যামেরা বসানোর  কাজ শেষ করার দাবি বিজিএমইএ’র

প্রকাশিত : ০৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ০৮:০৯ রাত
আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ০৮:০৯ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ছাত্রলীগের ৩০তম জাতীয় সম্মেলন, পরীক্ষিত নেতাদের নিয়েই কমিটি হবে

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ

সুজিৎ নন্দী: রাত পোহালেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন হওয়ায় ছাত্রলীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের হাতে থাকবে ছাত্র রাজনীতির পতাকা। 

এবার ছাত্রলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনে ছাত্রদের কাছে যাদের জনপ্রিয়তা আছে, গ্রহণযোগ্যতা বেশি, ছাত্রদের সঙ্গে ওতপ্রোত সম্পর্ক আছে তাদের দায়িত্ব দেওয়া হবে। ছাত্রদের থেকেও এবার প্রস্তাব নেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী দেখছেন, খোঁজ-খবর রাখছেন। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় নেতাদেরও দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তারাও খোঁজ-খবর নিচ্ছিন।

ছাত্রলীগের একাধিক নেতা জানান, করোনা মহামারিতে যারা বড় পরিসরে করোনা রোগীদের পাশে থেকেছে, নানা কাজের মাধ্যমে যারা সুনাম কুড়িয়েছেন এবং ছাত্রলীগের তৃণমূল পর্যন্ত যারা পৌঁছাতে পেরেছেন, ধান কাটা কর্মসূচী, করোনায় অক্সিজেন সরবরাহ, লক ডাউনের সময় বাড়ি বাড়ি খাবার পৌছে দেয়ার কাজ করেছে তাদের ভেতর থেকে নেতৃত্ব উঠে আসবে। 

আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন বিগত দুই নির্বাচনের তুলনায় সহজ হবে না। তাই এবারের নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকবে ছাত্রলীগের। এছাড়াও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ডাকসু নির্বাচন দেওয়া এবং আগামী প্রজন্মের জন্য যোগ্য নেতৃত্ব তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে বর্তমান সরকারের। সরকারের এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য ছাত্রলীগকে সবচেয়ে বেশি কাজ করতে হবে। 

সূত্র আরো জানায়, ছাত্রলীগের নেতৃত্ব বাছাইয়ের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী দক্ষতা, যোগ্যতা এবং পারিবারিক অভিজ্ঞতাকে গুরুত্ব দিবেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকবে ছাত্রলীগের। যার কারণে এবারের ছাত্রলীগে জনপ্রিয়, বিতর্কের ঊর্ধ্বে থাকা নেতৃত্বের দায়িত্ব প্রদানের পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা নিজে যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে এবারের কমিটি দেবেন। 

ছাত্রলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনের ক্ষেত্রে সারাদেশকে সাতটি অঞ্চল হিসাব করা হয়। অঞ্চলগুলো হচ্ছে চট্টগ্রাম, উত্তরবঙ্গ, ফরিদপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট, খুলনা ও বরিশাল। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কমিটি এক সঙ্গে হওয়ায় অনেক সময় প্রার্থীদের তালিকা আলাদা করা হয় না। একই তালিকা থেকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

এরই মধ্যে সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক পদে শতাধিক নেতাকর্মীর না শোনা গেলেও চ’ড়ান্ত ভাবে ১৮ থেকে ২০ জনের খসড়া তালিকা করা হয়েছে। তবে সব কিছুর পরে ছাত্রলীগের লাখ লাখ কর্মী বাহিনী রয়েছে। তাদের মধ্যে থেকে যোগ্য, দক্ষ, সাংগঠনিক ও ছাত্রদের মধ্যে জনপ্রিয়তা আছে এমন নেতৃত্বকে দায়িত্ব দেওয়া হবে।

এসএন/এএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়