প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মো. সামসুল ইসলাম: সৃজনশীলতার আর সুকুমার বৃত্তির চর্চা গলাবাজি করে হয় না

মো. সামসুল ইসলাম: সৃজনশীলতা ভিন্ন ব্যাপার। টাকাপয়সা, দলাদলি, স্বজনপ্রীতি, হম্বিতম্বি এসব দিয়ে শিল্প, সাহিত্য, সাংবাদিকতা, সংস্কৃতি এমনকি খেলাধুলার উন্নয়ন সম্ভব নয়। যার যে কাজে অভিজ্ঞতা নেই তাকে সেখানে বসিয়ে আমরা রাজনীতি, অর্থনীতিতে অনেক কিছু হয়তো অর্জন করতে পারি কিন্তু শিল্প, শিক্ষা, সংস্কৃতি, খেলাধুলায় নয়। দেশে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার পরপরই দেশের অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তি আমাদের সমাজে শিল্প সংস্কৃতি চর্চার বেহাল অবস্থার কথা বলেছেন। সমাজে নৈতিকতা, সৃজনশীলতার আর সুকুমার বৃত্তির চর্চা গলাবাজি করে হয় না। শিক্ষার ব্যাপক সুযোগ বাড়ছে। কিন্তু বাড়ছে না শিক্ষার মান। খেলাধুলায় সুযোগ-সুবিধা টাকা পয়সা এখন অনেক বেশি। কিন্তু সাফল্য নেই। পত্র-পত্রিকা, টিভি চ্যানেল বাড়ছে। কিন্তু ১৭ কোটি মানুষের দেশে প্রয়োজনীয় পাঠক, দর্শক নেই।

নাটক, সিনেমা, সাহিত্যের ক্ষেত্রেও আমরা একই কথা বলতে পারি। একধরনের বন্ধ্যাত্ব চলছে। ধারণার দুর্ভিক্ষে ভুগছে লেখালেখি। আমি লিখতে খুবই ভালোবাসি। কিন্তু ইদানীং লেখার আগ্রহ বোধ করি কম। কারণ জানি এর সঙ্গে রাজনীতির যোগ না থাকলে আমি সম্মান বা প্রয়োজনীয় অর্থ কিছুই পাবো না। দলমত নির্বিশেষে- প্রতিভাবানদের চরিত্রহরণ না করে তাদের সম্মান দিন। সৎ ও যোগ্য লোককে শীর্ষপদগুলোতে বসান। যারা জীবনে ক্রিকেটের ব্যাট ধরেনি তাদের দিয়ে দেশের ক্রিকেটে বিপ্লব হবে সে আশা করবেন না। Md. Shamsul Islam’র ফেসবুক ওয়ালে লেখাটি পড়ুন।

সর্বাধিক পঠিত