প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের পাকিস্তান বধের ইতিহাস

২০০৭ সাল : গ্রুপ লিগের ম্যাচ
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের যাত্রা শুরুতেই স্মরণীয় হয়ে আছে ভারত-পাক দ্বৈরথ। ডারবানে গ্রুপ লিগের ম্যাচ সুপার ওভারে গড়িয়েছিল। ওটাই ছিল কুড়ি-বিশের ক্রিকেটে প্রথম বোল-আউট। আর তাতেই জয় ধোনির টিমের।

২০০৭ সাল, ফাইনাল
বিশ্বকাপের কোনও ফাইনালে ওই প্রথম দেখা ভারত-পাকিস্তানের। আর তাতেই হিরো হয়ে আছেন ভারতের দু’জন। প্রথম জন বোলার যোগিন্দর শর্মা। আর দ্বিতীয় জন, শান্তাকুমারন শ্রীসন্থ। আছেন আরও একজন, তিনি অবশ্য ভিলেন হয়ে রয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেটে। যোগিন্দরের বলে স্কুপ শট খেলতে গিয়ে শ্রীসন্থের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছিলেন মিসবা উল হক। ধোনির টিম প্রথম বিশ্বকাপ জিতে হইচই ফেলে দিয়েছিল।

২০১২ সাল – বোলার বিরাট কোহলির এক স্মরণীয় ম্যাচ বলা যেতে পারে। পাকিস্তান ১২৮ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। একতরফা ম্যাচে ভারতীয় বোলাররাই শেষ করে পাকিস্তান ব্যাটিং লাইনআপকে। ৩ ওভার বল করে হাফিজের উইকেট নিয়েছিলেন বিরাট।
২০১৪ সাল – ঢাকায় আরও একবার একতরফা ভারত-পাক ম্যাচ হয়। আগে ব্যাট করে ১৩০ রান করে পাকিস্তান। বিরাট, শিখর, রায়নারা সহজেই তুলে দিয়েছিলেন সেই রান।

২০১৬ সাল – ইডেনের এই ম্য়াচেও বিরাট কোহলির প্রধান্য। ১১৮-৫ রানে শেষ হয়ে যায় পাকিস্তান। মহম্মদ আমির আর মহম্মদ সামি পাল্টা লড়াই চালালেও বিরাটকে থামাতে পারেননি। ৫৫ নট আউট করে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত।
রোববার (২৪ অক্টোবর) ফের ভারত-পাক। কী হতে পারে ম্যাচের ফল? ফেভারিট বিরাট কোহলির টিম। কিন্তু বাবর আজমের পাকিস্তানও খুব বেশি পিছিয়ে নেই। আবেগ আর উত্তেজনার বিস্ফোরণের অপেক্ষায় ওয়াঘার এপার-ওপার। – টিভি৯ বাংলা ডটকম

সর্বাধিক পঠিত