প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আরব আমিরাতে পৌঁছেছে টাইগাররা

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপে খেলতে যাবার আগে বাংলাদেশ দলের কাপ্তান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কন্ঠে সেমিফাইনালে খেলার প্রত্যয় জানিয়েছিলেন, তা কিছুটা ধূসর হয়ে পড়েছিল স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচেই। এতে সবাই যখন সমালোচনায় মুখর তখনই টাইগাররা ফিরল, ফেরার মতো! ডু অর ডাই ম্যাচে প্রথমে স্বাগতিক ওমান ও পরে পাপুয়া নিউগিনিকে উড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকাপে গ্রুপ ‘বি’ থেকে রানার্স-আপ হয়ে সুপার টুয়েলভে জায়গা করে নেয় সাকিব-রিয়াদরা।

হাসিমুখে বাছাই পর্ব শেষে ওমান ছেড়েছে টাইগাররা। মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে স্থানীয় সময় দুপুর ৩ টায় পা রেখেছে বাংলাদেশ দল। বিমানবন্দরে নেমে মেহেদি-মোস্তাফিজদের দেখা যায় হাসৌজ্জল চেহারায়।

আইসিসি বিতর্ক জন্ম দিয়ে বিশ্বকাপের সূচি পাল্টে ফেলেছে। আগে গ্রুপ বি’তে খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু সংশোধিত সূচি অনুযায়ী সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো ক্রিকেট পরাশক্তিরা। সঙ্গে প্রথম পর্ব থেকে টানা তিন ম্যাচ জেতা শ্রীলঙ্কা।

গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে সুপার টুয়েলভে যাওয়ায় সূচি অনুযায়ী টানা খেলার ধকলও থাকছে বাংলাদেশ দলের। আমিরাতের প্রচণ্ড গরমে স্বস্তি নেই সাকিবদের। ২৪ অক্টোবর শারজার মাঠে শুরু বাংলাদেশের অভিযান। প্রতিপক্ষ প্রথম পর্বে গ্রুপ ‘এ’ থেকে চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। তারপর ২৭ অক্টোবর আবুধাবিতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ২০১০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। ২৯ অক্টোবর একই মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে লড়বে টাইগাররা।

দম ফেলার সুযোগ খুব একটা নেই। তারপরই ২ ও ৪ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। সবচেয়ে আতঙ্কের খবর আমিরাতের আগুন গরমে সুপার টুয়েলভে ফ্লাডলাইটের আলোর নিচে কোন ম্যাচ নেই সাকিবদের। প্রতিটি ম্যাচ হবে স্থানীয় সময় দুপুর ২টায়। মানে রোদ মাথায় নিয়েই লড়তে হবে। গায়ের চামড়া পুড়িয়েও যদি সাফল্য মেলে, তবে সে কষ্টও যে স্বীকার করতে প্রস্তুত রিয়াদরা তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত